আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২১ ইং

কারো কাছে পৃথিবী কারো কাছে বোঝা

 

আহনাফ আহম্মেদ:

মা এই একটি শব্দ কোনো তুচ্ছ শব্দর মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়।আমার তো মনে হই,মা একটা এমন জায়গা, যা আমরা ঠিক সুস্পষ্ট ভাবে ব্যাখ্যা করার সক্ষমতা রাখি না ।

মা আমাদের সেই বটগাছ তলা যেখানে জীবনের কঠোর তপ্ত রোদের মধ্যে একফালি ছায়া, যেখানে চলার পথে ক্লান্ত হলেই জিরিয়ে নেই। মা আমাদের বাড়ির সেই কোনটা যেখানে আমরা আর সবকিছু ভুল হলে গিয়ে বসে নিঃস্বাস নি।মা সেই, যাকে ডাকের মধ্যেও শান্তির আভাস।

মা হলো এমনি এক পৃথিবী, যার অবর্তমানে অন্ধকারচ্ছন্ন সব কিছু। যেই মানুষটির সাথে জড়িয়ে আছে নাড়ির টান,যার প্রেরণা ও অকৃত্রিম ভালবাসায় জীবন পথে চলার শক্তি পেয়েছি, তাকে সম্মান জানানোর জন্য, তার প্রতি প্ ভালোবাসা প্রকাশের জন্য আলাদা কোনো দিন হয় না,
“Every day’s is our Mother’s Day”

মা দিবসের এসব অনুভুতি সমাজের অধিকাংশ মানুষের হলেও, অল্প কিছু সংখ্যাক মানুষের চিন্তাধারনা ঠিক এর বিপরীত মেরুতে অবস্থিত। বলতে গেলে উওর মেরু দক্ষিণ মেরু আরকি!কি ভাবছেন ! ভুল তথ্য! মা দিবসে একটু ভেবে দেখুন তো, ঠিক যেই সময় টা আমরা ফেসবুকে পোস্ট করছি বা নিজেদের অনুভূতি গুলো প্রকাশ করছি । ঠিক সেই সময় বৃদ্ধাশ্রমে অনেক মা চোখের জল ফেলছে।ঠিকই এই সময়টাই হয়ত কোনো মায়ের মাথার উপরের ফ্যানটা নষ্ট, ৩৬°সি তাপমাত্রায় তারা চরম দূভোগে।

কেন ভাই? বৃদ্ধাশ্রমে কেন!ছোট জায়গা ও কি নেই! এই (পৃথিবীর) জন্য। সমাজের প্রত্যেক মানুষের কাছে অনুরোধ মা নামক এই বেহেশত কে দূরে দিয়ে সুখ নয় বরং দুঃখকে আলিঙ্গন না করে তাদেকে ভালোবাসুুন।

ভালো থাকুক পৃথিবীর সমস্ত মা
মাকে তার মতো নির্ভেজাল ভালবাসা ও শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করি।
লেখক,
আহনাফ আহমেদ
শিক্ষার্থী,গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ