আজ ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ধামরাইয়ে শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারীর ১৩০তম তিরোধান দিবস সীমিত ভাবে পালিত

 

 

 

রনজিত কুমার পাল (বাবু)
নিজস্ব প্রতিবেদক :

আজ ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ রোজ মঙ্গলবার মহাযোগী শিবকল্পতরু বাবা লোকনাথ ব্রহ্মচারীর ১৩০ তম তিরোধান দিবস ধামরাই শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী বাবার আশ্রম ও জগন্নাথ মন্দিরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত ভক্তবৃন্দের উপস্থিতিতে উদযাপিত হয়।
সেই সাথে আজকের তিরোধান দিবসে উপস্থিত
সকল ভক্তবৃন্দ একত্রে সহকারে বাবাকে স্মরন করে যাহাতে বাবা সকলকে মহামারী করোনা ভাইরাস ও সকল পাপ তাপ থেকে রক্ষা করেন সেই জন্য বিশেষ প্রার্থনা করেন।
উল্লেখ্য শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী বাবার আবির্ভাব ১১৩৭ বঙ্গাব্দ সনে, এবং তিরোধান ১২৩৭ বঙ্গাব্দ। সে অনুযায়ী প্রতি বছর ১৯শে জ্যৈষ্ঠ ধামরাই পৌরসভাস্হিত কায়েতপাড়ার শ্রীশ্রী লোকনাথ আশ্রম ও জগন্নাথ মন্দির প্রাঙ্গণে শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী বাবার তিরোধান দিবস উপলক্ষে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে পাঁচ সহস্রাধিক ভক্তবৃন্দ সমাবেত হোন তিরোধান ধর্মোৎসবে। পূজা, হোম যজ্ঞাদি, বাল্যভোগ,ভোগরাগ,পাঁচালী পাঠ, অঞ্জুলী প্রদান, দুপুরে প্রসাদ সেবার ও বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এবার করোনা কালে মহামারী নোভেল করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব এর বিস্তার রোধে স্বাস্হবিধি ও সরকারি নির্দেশ মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে সীমিত পরিসরে ধর্মীয় নিয়ম অনুয়ায়ী তিরোধান দিবস পালন করা হয়।

সীমিত আকারে তিরোধান উৎসব উদযাপন করা প্রসঙ্গে শ্রীশ্রী লোকনাথ বাবার আশ্রম ও জগন্নাথ মন্দির কমিটির সভাপতি মুকুল দাস ও সাধারণ সম্পাদক পরিতোষ পাল বলেন- দেশের ক্রান্তিলগ্নে মহামারীর কারণে দেশের সকল মানুষের মঙ্গল ও কল্যাণ এর জন্য সরকারি নির্দেশ মেনে সীমিত আকারে এবারের তিরোধান উৎসব পালন করছি। সেই সাথে সকল ঋক্তবৃন্দকে বাবার স্মরণীয় মুহূর্তগুলো মনে ধারন করে প্রার্থনা করবে মনেপ্রাণে
বাবার বানী-
রনে বনে জলে জংঙ্গলে যখনই বিপদে পড়িবে আমাকে স্মরন করিও আমিই রক্ষা করিব…

সকল বিপদ থেকে রক্ষা পেতে স্বরন করুন………..

জয় বাবা লোকনাথ
জয় মা লোকনাথ
জয় শিব লোকনাথ
জয় ব্রহ্ম লোকনাথ
জয় গুরু লোকনাথ……..

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ