আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির চিরুনি অভিযান পরিদর্শনে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ও মেয়র আতিক

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ডেঙ্গু থেকে নগরবাসীকে সুরক্ষা দিতে ডিএনসিসির চলমান বিশেষ পরিচ্ছন্নতা অভিযান (চিরুনি অভিযান) পরিদর্শন করেন স্থানীয় সরকার, সমবায় ও পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম এবং মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম। আজ (১৮ই মে) সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর বারিধারায় তাঁরা চিরুনি অভিযান পরিদর্শনে আসেন।

এ সময় তাঁরা বারিধারায় ৯ নম্বর পার্ক রোডের একটি নির্মাণাধীন ভবনে বিপুল পরিমান এডিস মশার লার্ভার খোঁজ পান। পরে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে মন্ত্রী বলেন, “আমরা সকলে জানি এডিস মশা আবাসিক, অনাবাসিক ভবনে বংশবিস্তার করে। বিশেষ করে নির্মাণাধীন ভবন আমাদের জন্য হুমকিস্বরূপ। এজন্য আমরা সর্বসাধারণের কাছে বিভিন্নভাবে বিষয়টি অবহিত করেছি। কোনো ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে মর্মে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। এটা খুব দুঃখজনক যে, বারবার সতর্ক করা সত্ত্বেও নির্মাণাধীন বাড়ির মালিকগণ সচেতন হচ্ছেন না। তাঁরা মানুষের জীবনকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছেন। এজন্য আমি কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশ দিচ্ছি”।

ডিএনসিসির মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেন, “এডিস মশার লার্ভা পাওয়ার কারণে আমরা ইতিমধ্যে অনেক ভবন মালিকদের আর্থিক জরিমানা করেছি, তবে এখন সময় এসেছে তাদেরকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার”। মেয়র ঢাকাবাসীর প্রতি তিনদন পরপর জমে থাকা পানি ফেলে দেয়ার আহবান জানান। তিনি বলেন যারা ভবন তৈরি করছেন তাঁরা অনেক টাকার মালিক। কিন্তু তাদের অবহেলার জন্য আমরা সবাই ঝুকিতে আছি। মেয়র শহরবাসীর প্রতি এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করার আহবান জানিয়ে বলেন, এতে আপনি নিজে, আপনার পরিবার, সমাজ, শহর ও রাষ্ট্র বেঁচে থাকবে।

ডেঙ্গু থেকে নগরবাসীকে সুরক্ষা দিতে আজ সোমবার চিরুনি অভিযানের ৩য় দিনে মোট ১ হাজার ৩৪৯ টি বাড়ি, স্থাপনা, নির্মাণাধীন ভবন ইত্যাদি পরিদর্শন করা হয়। এসময় বিভিন্ন বাড়ি, প্রতিষ্ঠান, স্থাপনা, নির্মাণাধীন ভবন ও পরিত্যক্ত জায়গায় এডিসের লার্ভা পাওয়া যাওয়ায় ৭ টি মামলায় মোট ৭৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ