আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

আখাউড়ায় টাকার জন্য চিকিৎসা করাতে পারছেন না এক সময়ের যুবলীগ কর্মী শাহআলম

মো সুজন হাজারী : আখাউড়া প্রতিনিধিঃ

আখাউড়া উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের গঙ্গানগর গ্রামের, শাহআলম (৫৫) সরজমিনে গিয়ে জানা গেল যে, শাহ আলমের দুটি মেয়ে একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

তার স্ত্রী মা ভাই একি সংসারে বাস করে, এক সময় শাহআলম সিলেট শহরে পান সুপারির ব্যবসা করতেন। এই উপার্জন দিয়ে তাহার সংসার চলত।

হঠাৎ করে শাহআলম মিয়া স্টোক করে অসুস্থ হয়ে পরলে প্রথমে তাহাকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

কিছু দিন চিকিৎসা করে শাহআলম কিছু সুস্থ হলে, তাকে তার মা সিলেট থেকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। সে থেকে শাহআলমের পান সুপারির ব্যবসা বন্ধ হয়ে যায়।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শাআলম বলেন, আমি দশ মাস যাবৎ অসুস্থ হয়েছি টাকার জন্য চিকিৎসা করাতে পারছি না। এখন আমি সংসার চালাব নাকি আমার শরিল সুস্থ রাখব, এ চিন্তায় এখন আমি ঘরথেকে বাহির হয়ে গেছি।

কি করব জীবন দিয়ে যদি সংসার এবং শরিলের চিকিৎসা না করাতে পারি, এক সময় আওয়ামী যুবলীগের আখাউড়া উপজেলা কমিটির সদস্য ছিলাম।

এখন আমি অসুস্থ হয়ে পরলে আমার খুজ খবর নেওয়ার জন্য কোন ভিত্ত – শালি লোক এগিয়ে আসেনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার আকুল আবেদন আমাকে বাঁচতে দিন চিকিৎসার জন্য সহযোগিতা করুন।

পাশাপাশি এলাকার ভিত্তশালীদের কাছে আমার আকুল আবেদন আমার ছেলে মেয়ে নিয়ে এবং আমার চিকিৎসা করার জন্য সকলের কাছে মানবিক সহযোগিতা কামনা করছি।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ