আজ ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

লক্ষ্মীপুরে অসহায় রিক্সা চালকের জমি প্রভাবশালীদের কব্জায়

 

মোঃ হৃদয় হোসেন লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে রিক্সা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো সৈয়দ আহমেদ (৬৫)। নিজ স্ত্রী লুৎফুর নেছা দূরারোগ্য রোগ আক্রান্ত হয়ে হয়েছেন শারীরিক প্রতিবন্ধী। বয়স বাড়ার সাথে সাথে রিক্সাও ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। ছেলে সন্তান নিয়ে থাকেন রায়পুর পৌর শহরের ৯নং ওয়ার্ড এল.এম স্কুলের পিছনে। নিজেদের ২৭ডিসিম জমি থাকতেও একটি ঝুপড়ি ঘরে গাদাগাদি করে ছেলে সন্তান নিয়ে থাকছে সৈয়দ আহমেদ। তার দখলে মাত্র দেড় ডিসিম। বাকি জমি স্থানীয় প্রভাবশারীরা দখল করে রেখেছে বলেন জানা যায়।

সৈয়দ আহমেদ জানান, ছেলে মেয়ে নিয়ে অসহায় জীবন যাপন করছি। আমার জমি থাকতেও না পারছি ঘর তুলতে না পারছি থাকতে। তারা আমার মায়ের কবর দিতেও দেয় নি। বাধ্য হয়ে ঘরের সামনেই মায়ের কবর দিয়েছি।

তিনি আরো জানান, তারা ৭ভাই বোন মিলে ২০১৩ সালে ৯ডিসিম জমি কিনেন। এছাড়াও তার মায়ের সম্পত্তি রয়েছে ১৮ডিসিম। এর মধ্যে সৈয়দ আহমেদ দেড় ডিসিমে ঘর করে থাকছেন। বাকি সম্পত্তি স্থানীয় প্রভাবশালী আলম, তবিব উল্যাহ, বাচ্চু মিয়া দখল করে রেখেছে বলে তারা অভিযোগ।

সম্প্রতি তিনি ঘর তুলতে গেলেও বাঁধা দেয় স্থানীয় এ প্রভাবশালীরা। ফলে তিনি আর ঘর তুলতে পারেন নি। স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বিষয়টি বহুবার সমাধান করার চেষ্টা করলেও অদৃশ্য শক্তির কারণে তা ফলপ্রসূ হয় নি। এতে জমি বুঝে না পেয়ে হতাশায় দিন কাটতে সৈয়দ আহমেদের।

এলাকাবাসী জানান, সৈয়দ আহমেদের জমি তার বসত ঘরের আশেপাশেই আছে। সেসব জমি প্রভাবশালীরা দখল করে রেখেছে। সুষ্ঠু তদন্ত করে তার জমি উদ্ধার করে দিতে প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান এলাকাবাসী।

অভিযুক্ত আলম বলেন, কাগজপত্র অনুযায়ী সৈয়দ আহমেদের ২৭ডিসিম জমি আছে এটা সত্য, তবে তা কোন জায়গায় আছে তা নির্দিষ্ট না। সে আমার অংশে যদি জমি পেয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই তাকে বুঝিয়ে দেবো।

রায়পুর পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন রাসেল বলেন, সৈয়দের জমি সংক্রান্ত ঝামেলা বৈঠকের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করবো। সে নিরীহ মানুষ। তার প্রতি যাতে অবিচার না হয় বিষয়টি আমরা গুরুত্ব সহকারে দেখবো।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ