আজ ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৭শে মে, ২০২৪ ইং

তাহিরপুরে এনিয়ে ৪র্থ দফা বন্যা,ক্ষতিগ্রস্তে শত শত পরিবার

 

তানভীর আহমেদ,
বিশেষ প্রতিনিধিঃ

সুনামগঞ্জ জেলার নিন্ম অঞ্চল তাহিরপুর উপজেলায় গত ৩-৪,দিনের ভারী বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলে দেখা দিয়েছে বন্যা।ভারী বৃষ্টিপাতেই বন্যার কারণ হয়ে দারাচ্ছে। এনিয়ে তাহিরপুরে ৪র্থ দফা বন্যা।

মহামারী করোনা ভাইরাসের মধ্যে এনিয়ে দেখা দিলো ৪র্থ দফা বন্যা।একদিকে উপজেলার সবকটি গ্রামে মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে আয়-রোজগার বন্ধ।অভাব অনটন লেগেই আছে।তার মধ্যে পর-পর ৪র্থ দফা বন্যার ক্ষয়ক্ষতিতে দিশেহারা উপজেলা বাসী।

বন্যার পানিতে তলিয়ে গেল অনেক ঘর-বাড়ি।অনেকের আবার ভেঙ্গে গেল বসতবাড়ি।অনেকের মাথায় যেন আকাশ ভেঙ্গে গেলো।হাহা কার উপজেলার প্রতিটি গ্রামের মানুষ।নিরাপদ আশ্রয় নিতে ছুটে চলছে গ্রামের সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে।

স্থানীয়রা জানান,এবছর অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত ও বন্যার কারণে আমরা দিশেহারা।পর-পর এভাবে বন্যা দেখা দিলে আমরা বসতবাড়ি রক্ষা করতে পারবো না।হাওরের সৃষ্ট প্রবল ঢেউ এর কারণে ভেঙ্গে যাচ্ছে বসতবাড়ি।
পর্যাপ্ত শুকনো খাবার নেই আমাদের অনেকের ঘরে ঘরে।

আরো জানান,এই অকাল বন্যায় কী করবো আমরা?ঘর-বাড়ি রক্ষা করবো?না আমাদের জীবন?দিশেহারা হয়ে গেলাম। কি করবো ভেবে পাচ্ছি না।
এখন আমাদের সময়ের দাবী,বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারে ও বন্যার্ত পরিবারে শুকনো খাবার বিতরন সহ যাবতীয় সহযোগীতা কামনা করি।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা-পদ্মাসন সিংহ জানান,পর্যাপ্ত পরিমাণ শুকনো খাবার আছে।আমরা বন্যার্তদের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ করবো।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ