আজ ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুলাই, ২০২১ ইং

বোয়ালখালীতে যৌতুকের ৫ হাজার টাকা কম দেওয়ায় বিয়ের পিঁড়িতে বসেনি পাত্র

মোঃ মিজানুর রহমান,চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি :
বোয়ালখালীতে যৌতুকের ৫ হাজার টাকা কম দেওয়ায় বিয়ের পিঁড়িতে বসেনি পাত্র।উপজেলার মেধস মুনির আশ্রমে এ ঘটনা ঘটে।
চন্দনাইশ উপজেলার এক দশম শ্রেণি পড়ুয়া
 মেয়ের সাথে বোয়ালখালী উপজেলার কড়লডেঙ্গা ইউনিয়নের উত্তরভূর্ষি গ্রামের বাবুল শীলের ছেলে যিকু শীলের বিয়ের কথা ছিলো।যিকু স্থানীয় সেলুন কর্মচারী।পাত্রপক্ষের দাবি ছিলো নগদ ৬০ হাজার টাকা ও ১ ভরি স্বর্ণালংকার এবং মন্দিরে বিয়ের আয়োজন করলে হবে। এছাড়া ছেলের ঘর ফার্নিচার দিয়ে সাজিয়ে দিতে হবে।ছেলের দাবি অনুযায়ী ধার্য তারিখ মেধস আশ্রমে বিয়ের আয়োজন করা হয়। বাকি সবকিছু দিলেও নগদ ৬০ হাজার টাকার মধ্যে ৫হাজার টাকা কম থাকায় পাত্র বিয়ের পিঁড়িতে বসতে অস্বীকার করেন। এ নিয়ে দেন দরবারে তিনটি লগ্ন পেড়িয়ে যায়। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়।থানা পুলিশ পাত্রসহ তিনজনকে আটক করার পর তারা এ বিয়েতে রাজি হলেও কনে এ বিয়ে রাজি হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন কনে পক্ষ। তারা বলেন, পাত্রপক্ষ চাপে পড়ে রাজি হলেও পরবর্তীতে সমস্যার সৃষ্টি হবে। মাত্র ৫হাজার টাকার জন্য যে বিয়ে করেনি, তাকে কার ভরসায় মেয়ে তুলে দিবো।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আবদুল করিম বলেন, এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে হাজার টাকা কম, তাই বিয়ের পিঁড়িতে বসেনি পাত্র! বোয়ালখালীতে যৌতুকের টাকা কম দেওয়া বিয়ের পিঁড়িতে বসেনি পাত্র।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ