আজ ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ই মে, ২০২১ ইং

‘স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীরাও দিলো অনুদান’

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি :

সবাই স্কুল পড়ুয়া। সাথে বন্ধ শ্রেনি কার্যক্রম। এতোসব প্রতিকূলতা মনের শক্তির কাছে হার মেনেছে। মানবিকতার জয় হয়েছে। যার যা আছে তা নিয়ে গঠন করলো তহবিল। বলছিলাম, গুলতাজ মেমোরিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের কথা।
তারা আজ সোমবার ১৩ হাজার টাকা নিয়ে হাজির উপজেলা পরিষদে। তাদের এই অনুদানের পরিমান কতো তা বিবেচ্য নয়, কিন্তু মাধ্যমিক স্কুলের গন্ডি পার না হওয়া কচিকাঁচা শিক্ষার্থীদের মাঝে যে মানবিক মূল্যবোধ জাগ্রত হয়েছে সেটায় অনেক বড় প্রাপ্য।
ভালাবাসার ফটিকছড়ির কোভিড-১৯ হাসপাতাল শিখিয়ে দিলো মানবিকতার বীজ কিভাবে বুনতে হয়।

হাসপাতালে চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি অবহ্যত রয়েছে অনুদান প্রদান। ফটিকছড়ি করোনেশন আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে অ্যাম্বুলেন্স প্রদান করার তহবিলে ১ লাখ ৮৭ টাকা প্রদান করলো ব্যাচ ১৯৮৭। যা ইউএনও সায়েদুল আরেফিনের মাধ্যমে অ্যাম্বুলেন্স ফান্ডে হস্তান্তর করা হয়।
সুন্দরপুরের পূর্ব আজিমপুর গ্রামের দুই প্রবাসী সহোদর মাসুদ ও মামুন দিলেন দশ হাজার টাকা। রোসাংগিরী ইউনিয়নের পাঠানপাড়াস্থ নবজাগরণ সংঘ নামক একটি সংগঠন দিলো ৫ হাজার টাকা।
সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা ও অভিবাদন।

‘আমাদের টাকায় আমাদের হাসপাতাল’ শ্লোগানে রুপান্তরিত হাসপাতালটিতে পুরোদমে চলছে এখন চিকিৎসা সেবা। যা শহরের উন্নতমানের হাসপাতালের আদলে। গরীর দুস্তদের বিনামূল্যে ও স্বচ্ছলদের কাছ থেকে নূন্যতম ফি গ্রহন করা হচ্ছে। সবার সহযোগিতার এই হাসপাতাল দেশজুড়ে একটি মডেল হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছে।
প্রচারণা টিম
ফটিকছড়ি কোভিড-১৯ হাসপাতাল।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ