আজ ৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২১ ইং

ছাত্রলীগ নেতা রবিন খাবার পৌঁছে দিচ্ছে অসহায় মানুষের ঘরে

 

 

প্রিন্স ঘোষ 

করোনাভাইরাস এর নাম শুনলেই যেন মনের মধ্যে একটি আতংক তৈরি হয়। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না। এর সংক্রমণ ঠেকাতে চলছে জোড় চেষ্টা। লক ডাউনের আউতায় আনা হয়েছে অনেক দেশ। মানুষের জীবনের সাথে থমকে পরেছে বিশ্ব অর্থনীতি ব্যতিক্রম হয়নি বাংলাদেশের ক্ষেত্রেও। করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন প্রায় সারা দেশ। এর প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন অনেকে। অনেক নিম্নবিত্ত পরিবার বিভিন্ন সংস্থা থেকে পাচ্ছে খাদ্য সহায়তা কিন্তু লক ডাউন চলায় অনেক মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষও পরেছে বিপদে। অনেকেই দিন যাপন করছে অনেক কষ্টে । এই পরিবারগুলোর সদস্য কেউ হয়তো শিক্ষক, কেউ ছোট ব্যবসায়ী আবার কেউ ছোটখাটো চাকরি করে । নিম্ন আয়ের অনেকেই সহায়তা পেলেও মধ্যবিত্ত এই পরিবারগুতলো লোক-লজ্জার ভয়ে কারো কাছে চাইতে পারছে না খাবার, পাচ্ছে না ত্রান। তাই সাধারণ এই সব অসহায় মানুষের জন্য লকডাউনের শুরু থেকেই কাজ করে আসছে সাভারের সাভার পৌর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আর এইচ এম রবিন। তিনি সাভার এর বিভিন্ন এলাকায় উপহার নামে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছে। তিনি চাল, ডাল, তেল সহ আরো বিভিন্ন ধরনের খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছেন তিনি। এই ব্যপারে তগার কাছে জানতে চাইলে তিনি দৈনিক আগামীর সংবাদকে জানান
“আমি কারো অসহায়ত্বের সুযোগ গ্রহন করিনা, আমি এখন পর্যন্ত কোন ত্রানের ছবি আপলোড দেইনাই কারন আমার কাছে এগুলা খুবি বিরক্ত লাগে, কিন্তু যখন ছাত্রলীগ কাজ করছে তখন আমার এগুলা মানুষকে জানাতে মন চায়, কারন ছাত্রলীগ শুধু মাত্র ছাত্রদের সংগঠন নয় , এইটা দক্ষিন এশিয়ার সব থেকে বৃহৎ সংগঠন , দুর্যোগকালীন সাহায্যের সংগঠন,নিপিরিত মানুষের সংগঠন, ক্ষুদার্থ দেশ আর তার জনগনের সংগঠন।মহান আল্লাহ পাক আমাদের মাধ্যমে এই সব অসহায় মানুষের রিজিক তার ঘরে পৌছিয়ে দিয়েছে।
ত্রান পাওয়া এক ব্যক্তি (নাম প্রকাশে অনইচ্ছুক) বলেন “করোনার এই দূর্যোগ এ আমরা খুব কষ্টে আছি কিন্তু রবিনের সাহায্যের হাত বারিয়ে দেওয়ায় আমরা অনেক উপকার পেয়েছি”।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ