আজ ৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২১ ইং

সেই সেতু পার হলেন না মতিয়া চৌধুরী

 

শেরপুর প্রতিনিধিঃ

শেরপুরের নালিতাবাড়ীর ভোগাই নদীর ওপর ভেঙে যাওয়া চারালি সেতু তড়িঘড়ি করে চালু করায় অনিয়মের অভিযোগ তুলে সেই সেতু পার হলেন না স্থানীয় সংসদ সদস্য, সাবেক কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী।
এ নিয়ে তিনি বলেন, ‘ছ্যাপ দিয়ে ল্যাপ দেবেন আর সেই ব্রিজের ওপর দিয়ে আমি যাব, এটা চিন্তা করা ঠিক না। রাতের বেলায় বৈঠক করে ক্যাশ বাটোয়ারা করলে কোনো অন্যায়, কোনো পাপ জায়েজ হয়ে যায় না। এটা মনে রাখবেন।’ মতিয়া চৌধুরী গতকাল মঙ্গলবার সকালে নালিতাবাড়ী উপজেলার নয়াবিল ইউনিয়নে কর্মহীন মানুষদের আর্থিক সাহায্য করতে স্থানীয় ইসলামিক মিশন এলাকায় যান। সেখান থেকে মাত্র আধাকিলোমিটার দূরে নাকুগাঁও এলাকার ভোগাই নদীর ওপর চারালি সেতু। সেই সেতুর ওপর দিয়ে তাঁর রামচন্দ্রকুড়ায় যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নিম্নমানের কাজ করে কর্তৃপক্ষ তড়িঘড়ি করে সেই সেতু জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ায় তিনি ভীষণ ক্ষুব্ধ হন। এর প্রতিবাদে তিনি মাত্র পাঁচ মিনিটের সহজ রাস্তায় না গিয়ে প্রায় ২৩ কিলোমিটার ঘুরে রামচন্দ্রকুড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে যান। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে ভোগাই নদী ও নাকুগাঁও ব্রিজটি হুমকীর মুখে ফেললেও প্রশাসন লোক দেখানো অভিযান পরিচালনা করে। এসময় তিনি প্রশাসনের পাশপাশি সড়ক ও জনপথ বিভাগের দায়িত্বহীনতাকেও এ জন্য দায়ী করেন।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, এখনও নামেমাত্র মেরামত করা ব্রিজের আশপাশ থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও অতিরিক্ত বোঝাই ভেজা বালু পরিবহন অব্যাহত রয়েছে। ফলে বর্ষা মৌসুমের পাহাড়ি ঢল নামলে যে কোন দূর্ঘটনাটা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।এ সময় শেরপুরের পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম, নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আরিফুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ