আজ ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ইং

আশুলিয়ায় বাড়ি ভাড়া মওকুব করে যুবলীগ নেতা সোহেল সরকার

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ধীরে ধীরে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়তে শুরু করেছে। অজানা অপরাধে সারা পৃথিবীর মানুষকে কোনঠাসা করেছে ভাইরাসের এই অদৃশ্য শক্তি। এর প্রভাবে বাংলাদেশে চলছে অঘোষিত লকডাউন। এতে করে চরম দুরাবস্থায় পড়েছে শ্রমিকরা। তাদের কথা চিন্তা করে সাভারে বাড়িওয়ালাদের ৪০ শতাংশ বাড়িভাড়া মওকুফের আহবান জানিয়েছেন ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর আহবানে সারা দিয়ে এবার দুটি বাড়ির ৪০ শতাংশ ভাড়া মওকুফ ইয়ারপুর ইয়নিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সোহেল সরকার।

এর আগে গত ৮ মে দুপুরে শিল্প পুলিশ-১ এর প্রধান দপ্তরে জনপ্রতিনিধি, শিল্প পুলিশ, বাড়িওয়ালা এবং আশুলিয়া ভাড়াটিয়া পরিষদের যৌথ বৈঠকে শ্রমিকদের ৪০ শতাংশ বাড়ি ভাড়া মওকুফের আহবান জানানো হয়। পরে তাদের সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে একই আহবান জানান দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান ও আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক রিজাউল হক দীপু।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে দেশের মানুষকে বাঁচাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছেন সরকার। কয়েক ধাপে বন্ধ ঘোষণা করেছেন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহণ ও পোশাক শিল্প। তবে দেশের অর্থনীতি বাঁচিয়ে রাখতে গত ২৬ এপ্রিল থেকে ৩০ শতাংশ শ্রমিক নিয়ে সীমিত আকারে খোলা হয়েছে পোশাক কারখানা। বাকি শ্রমিকদের মোট বেতনের ৬৫ শতাংশ বেতন নির্ধারণ করা হয়। যা বাসা ভাড়ার চেয়ে কিছু বেশি। বাসা ভাড়া পরিশোধের পর শ্রমিকদের দিন কাটবে অতি কষ্টে। যেহেতু আশুলিয়া শিল্প অধ্যুষিত এলাকা তাই এই এলাকার বাড়িওয়ালাদের প্রতি শ্রমিকদের ৪০ শতাংশ বাসক ভাড়া মওকুফের আহবান জানানো হয়। মুলত মানবিক দিক বিবেচনা করে আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহবায়ক কবির হোসেন সরকার ও যুগ্ম আহবায়ক মইনুল ইসলাম ভুঁইয়ার অসহায়দের সহযোগীতার ক্রমধারা বজায় রাখতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যুবলীগের এই তরুণ যুবলীগ নেতা সোহেল সরকার

সোহেল সরকার বলেন, করোনাভাইরাসে শনাক্ত রোগী পাওয়ার পর থেকে দেশজুড়ে চলছে অঘোষিত লকডাউন। এই লকডাউনের প্রভাবে কর্ম হারিয়ে অসহায় হয়ে পড়েছে অনেকেই। এই অসহায় মানুষের পাশে শুরু থেকেই থানা যুবলীগের আহবায়ক ও যুগ্ম আহবায়কের অর্থায়নে পাশে দাড়িয়েছে থানা যুলীগের কর্মীরা। এর আগেও প্রায় ৪ লাখ টাকার বাড়ি ভাড়া মওকুফ করেছেন থানা যুবলীগের আহবায়ক কবির হোসেন সরকার। তারই আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর আহবানে আমার দুইটি বাড়ির ৪০ শতাংশ ভাড়া মওকুফ করেছি। যুবলীগ অতীতেও অসহায় মানুষের পাশে ছিল আর থাকবে।

তারা আরও বলেন, মানবিক দিক বিবেচনা করে সকল বাড়িওয়ালার উচিৎ ভাড়াটিয়া শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানো। আমি ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমানের সাথে সুর মিলিয়ে সকল বাড়িওয়ালাকে ৪০ শতাংশ বাড়ি ভাড়া মওকুফের আহবান জানাই

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ