আজ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

করোনা চিকিৎসায় হাসপাতাল হস্তান্তরের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে চিকিৎসকের খোলা চিঠি

 

রনজিত কুমার বাবু, নিজস্ব প্রতিবেদক:

মুজিববর্ষে স্বাস্থ্য খাত, এগিয়ে যাবে অনেক ধাপ

বরাবর,
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ,
পুরাতন সংসদ ভবন,
তেজগাঁও, ঢাকা -১২১৫,
বাংলাদেশ।

বিষয়ঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট করোনায় আক্রান্ত রোগীদের সেবার জন্যে হাসপাতাল হস্তান্তরের জন্যে খোলা চিঠি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ।
চিঠির প্রারম্ভে আপনার প্রতি জানাই গভীর স্বশ্রদ্ধ সালাম ও মুজিবীয় শুভেচ্ছা।
আশা করি মহান আল্লাহ তায়ালার রহমতে আপনি ভালো আছেন। আপনি ভালো থাকুন। আপনি ভালো থাকলে, আমরা ভালো থাকবো। বাংলাদেশ ভালো থাকবে। আপনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমি আপনার দলের একজন নিবেদিত প্রান কর্মী। আজ আপনার নেতৃত্বে চলছে বৈশ্বিক মহামারী করোনা থেকে সুরক্ষা আয়োজন। প্রতিদিন আপনার যোগ্য নেতৃত্ব, দিক-নির্দেশিকা এবং নিবিড় পর্যবেক্ষন এর সাথে কাজ করে যাচ্ছে দেশের স্বাস্থ্যকর্মী, প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সশস্ত্র বাহিনী। সবাই যে যার দিক থেকে ঝাপিয়ে পড়ছে আপনার ডাকে এই বৈশ্বিক মহামারীকে মোকাবেলা করার জন্যে।

সেই লক্ষ্যে আমার জীবনের কষ্টার্জিত সকল সম্পদ ব্যয় করে তৈরী করা “রাবেয়া মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটি” কে সরকারের নিকট হস্তান্তর করে কোভিড-১৯ চিকিৎসার জন্যে ডেডিকেডেড হাসপাতালে রূপান্তর করে এই বৃহৎ যুদ্ধে নিজেকে নিয়োজিত করতে চাচ্ছি।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আমার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটি বর্তমানে ২৫০ শয্যার যা ১০০০ শয্যায় রূপান্তর করা সম্ভব।এই ২৫০ শয্যা হাসপাতালটি ২০১৭ সালে সরকার কর্তৃক অনুমোদিত হয়েছে।এটি ঢাকা জেলার ধামরাই থানার কালামপুরে ঢাকা- আরিচা মহাসড়কের পাশেই অবস্থিত। এলাকাটি সংসদীয় আসন ঢাকা-২০। এছাড়া রাবেয়া মেমোরিয়াল মেডিকেলের অভ্যন্তর অত্যন্ত সুপরিসর হওয়ায় কোভিড-১৯ চিকিৎসার জন্যে হতে পারে একটি আদর্শ হাসপাতাল। এইছাড়া হাসপাতালের সামনে রয়েছে নিজস্ব মাঠ যা জরুরি এ্যাম্বুলেন্স-হেলিকপ্টার এর অবতরন এবং উড্ডয়ন করার কাজে ব্যবহৃত হতে পারে।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, “রাবেয়া মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালটি” ১৪ বিঘার জমির উপর অবস্থিত, যার দরুন সঠিক ভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে টেস্ট করতে আগ্রহীরা কোভিড-টেস্টের জন্যে অপেক্ষা করতে পারবে। রয়েছে বিশাল অডিটোরিয়াম আর আধুনিক ল্যাব
টেস্টের জন্যে। আশেপাশে ঘনবসতি না থাকায় এবং নিরিবিলি মনোরম পরিবেশ হওয়ায় “রাবেয়া মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটি” হতে পারে নিরাপদ চিকিৎসাস্থল চিকিৎসা প্রার্থীদের জন্যে।
ডাক্তারদের থাকার জন্যে অনেক জায়গায় আবাসন সংকট দেখা দিচ্ছে, কোথাও আবার তাদের হেনস্থা করা হচ্ছে। তাই ফ্রন্ট লাইনের এই সৈনিকদের জন্যে রয়েছে থাকার ব্যবস্থা যেখানে তারা নিরাপদে এবং নির্বিঘ্নে থাকতে পারবে কোয়ারেন্টাইনে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা,
আপনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুরের সুযোগ্য কন্যা, আপনি দেশমাতা, আপনি আমাদের নেত্রী।
নেত্রী কখনও তার কর্মীদের ফিরিয়ে দিতে পারে না। তাই আমরা বুকভরা আশা নিয়ে আজও বেঁচে আছি আমাদের নেত্রীর মুখের দিকে তাকিয়ে।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি উদ্যোগ নিলে আমরা ভালো একটি ফলাফল আশা করি। আমরা মহাসংকট থেকে রেহাই পেতে পারি। চীনের উহান থেকে শুরু হওয়া মরণব্যাধী করোনা ভাইরাস বিস্তার লাভ করে এখন পুরো বিশ্বে তার প্রভাব ফেলেছে। পুরো বিশ্বে তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছি প্রাণঘাতী ভাইরাস। দেশে সংকটের সময় আপনার বলিষ্ঠ দায়িত্ব পালন ও ভূমিকা ছিল জনকল্যাণমুখী এবং এখনও দেশের মানুষ আপনার দিকে তাকিয়ে আছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ