আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২১ ইং

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর আগামীকাল থেকে লকডাউন

 

মোঃ হৃদয় হোসেন লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলা (অবরুদ্ধ) লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে উপজেলা আইনশৃংখলা সমন্বয় সভায় প্রশাসন এ ঘোষণা দেন। মঙ্গলবার (১২ মে) এ লকডাউন কার্যকর হবে। সোমবার জারি করা গণবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, সংক্রমণ রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন, ২০১৮-এর ১১(১)(২)(৩) ধারা অনুযায়ী জনসাধারণের জানমালের নিরাপত্তা বিধানের লক্ষ্যে রায়পুর উপজেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হলো। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপজেলা থেকে সড়ক, নৌ বা অন্য কোনো পথে কোনো ব্যক্তি বা যানবাহন বের হতে পারবে না। অন্য কোনো উপজেলা থেকে কেউ আসতে পারবে না। পাশাপাশি সব ধরনের যানবাহন ও জনসমাগম বন্ধ থাকবে। এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় চলাচল কঠোরভাবে সীমিত থাকবে। তবে লকডাউনের সময় বিদ্যুৎ, গ্যাস, ইন্টারনেট, ব্যাংকিংসহ জরুরি পরিসেবা, চিকিৎসা ও ওষুধ সরবরাহ, নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্য এবং কৃষিপণ্য পরিবহনে নিয়োজিত ব্যক্তি ও যানবাহনের জন্য এসব নির্দেশনা শিথিল থাকবে। সকাল ৮ থেকে ৪টা পর্যন্ত পৌরসভার সকল কাঁচাবাজার মার্চ্চেন্টস একাডেমির মাঠে বসবে এবং ২ টা পর্যন্ত ১০টি ইউনিয়নের স্ব-স্ব বাজারগুলোতে বসার সময় নির্ধারন করে দেয়া হয়েছে।।

রায়পুর এলএম পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুবুর রহমান ও ডিজিটাল পোষ্ট অফিসের উদ্যোক্তা সোহেল রানা বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকলেও সরকারি নির্দেশে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মার্কেটগুলোতে মানুষের ঢল নেমেছে। স্বাস্থবিধি না মেনে ভিড় করে পোশাকসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনছেন। বেশিরভাগ নারী ও শিশু। দু’একটি দোকানে প্রবেশের সময় স্বাস্থ্যবিধি মানলেও বেশির ভাগ দোকানে মানা হয়নি। ধন্যবাদ প্রশাসনকে।।

রায়পুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাবরীন চৌধুরী জানান, মঙ্গলবার থেকে এ উপজেলা লকডাউন করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত তা কার্যকর থাকবে।

উপজেলা চেয়ারম্যান ও আ’লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ জানান, রায়পুরে মার্কেটগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে যেভাবে নারী ও শিশুরা ভীর করছেন। আমাদের সচেতন না হলে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়বে। লকডাউনের বিষয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে আইনশৃংখলা সভায় সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি।

উল্লেখ্য, রায়পুর উপজেলা এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪জন। যার মধ্যে শিশু ১ জন রয়েছে। এর মধ্যে হোম আইসোলেশনে আছে ৩ জন, প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে ১ জন।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ