আজ ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং

ভাঙ্গায় ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ আহত অর্ধশতাধিক

মুকুল বোস ফরিদপুর প্রতিনিধি :

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ভাঙ্গা থানা পুলিশ সাংবাদিকসহ কমপক্ষে অর্ধশতাধিক আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার পৌরসদরের কলেজ পাড় এলাকায় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে এই সংঘর্ষ ঘটে। ঘটনার পরপরই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ৫৪ রাউন্ড রাবার বুলেট, সাউন্ড গ্রেনেড ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করেছ।

এসময় উভয় পক্ষের ইট পাটকেলের আঘাতে বেশ কয়েক জন পুলিশ সদস্যও আহত হয়। আহতদেরকে উদ্ধার করে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ফরিদপুরে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রেজানাযায়,মঙ্গলবার সকালে সরকারি কাজী মাহাবুব উল্ল্যাহ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে বিবাদমান দুই গ্রামবাসীর কয়েক যুবক ক্রিকেট খেলছিল।

খেলা চলাকালীন আলগী ইউনিয়নের সোনা খোলা গ্রামের জনৈক যুবকের সাথে পৌরসদরের কাপুড়িয়া সদরদী গ্রামের এক যুবকের সাথে কথা-কাটাকাটি হয়।একপর্যায়ে খেলা সংঘর্ষে রূপ নেয়, খেলার ষ্ট্যাম ও ব্যাটদিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা চালায়।

পরে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুপুরে পৌরসভার কাপুরিয়া সদরদী, হোগলাডাঙ্গি সদরদীর সহ পাশ্ববর্তী গ্রাম ও আলগী ইউনিয়নের সোনাখোলা,

বালিয়াচরা, মাঝারদিয়া স পাশ্ববর্তী গ্রামের মানুষ ২ ভাগে বিভক্ত হয়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। দুপুর ১২ টা থেকে শুরু হয়ে এই সংঘর্ষ বেলা ৩ টা পর্যন্ত প্রায় ১০ গ্রামের মানুষ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।

এতে মূহুর্তের মধ্যে এলাকায় রনক্ষেত্রে পরিনত হয়। খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালায়।

এই বিষয়ে ভাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মো. জিয়ারুল ইসলামের বলেন এখন পরিস্থিতি আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাই নি অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে এলকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ