আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় উদ্ধার করা ১২০ বস্তা চাল সরকারী নয়

 

পরিমল চন্দ্র বসুনিয়া,লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সিন্দুর্না লোকমান হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশ এক গোডাউন থেকে উদ্ধার করা ১২০ বস্তা চাল সরকারী চাল নয় বলে দাবি করেছেন জনপ্রতিনিধি ও ব্যবসায়ীরা।

আজ(২১ এপ্রিল)মঙ্গলবার দুপুরে হাতীবান্ধা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এমন দাবি করেন তারা।

জেলার হাতীবান্ধা উপজেলা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মনোয়ার হোসেন দুলু বলেন, উদ্ধার হওয়া চাল ব্যবসায়ী শাহজাহান আলী পাটগ্রাম থেকে কিনেছেন। যড়ষন্ত্রমুলকভাবে একটি মহল সরকারি চাল বানিয়ে নাটক তৈরির চেষ্টা করেছেন।

এসময়, পাটগ্রাম ইনশাআল্লাহ অটো রাইস মিলের পরিচালক রফিকুল ইসলাম রুমন বলেন, সরকারি সীলযুক্ত খালি ব্যবহারিক বস্তাগুলো রংপুর থেকে কিনে আমার প্রতিষ্ঠানে চাল ভর্তি করে বিক্রি করেছি। বাজারে এমন হাজার হাজার বস্তা চাউল আছে। শাহজাহান আমার প্রতিষ্ঠান থেকে ওই চালগুলো কিনেছেন।

চাল ব্যবসায়ী শাহজাহান বলেন, ট্রলি ও ট্রলি চালকের সাথে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। আমি ট্রলি ভাড়া করি নাই। উল্লাস নামে এক ব্যক্তি ট্রলি ভাড়া করেছেন তিনি ভালো বলতে পাবেন কোন চাল নিয়ে যাওয়ার জন্য ট্রলি ভাড়া করেছেন। আমার চাল সরকারী চাল নয়। আমার চাল যড়ষন্ত্রমূলক ভাবে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপজেলা ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক সিন্দুর্না ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নুরল আমিন ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন তাজুসহ অর্ধশতাধিক চাল ব্যবসায়ি উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ