আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২১ ইং

শাহরাস্তিতে করোনা সচেতনতায় স্কাউটসের কার্যক্রম অব্যাহত, প্রশংসিত বিভিন্ন মহলে

 

ইব্রাহীম খলীল সবুজ – চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী নোবেল করোনা ভাইরাস, বাংলাদেশেও শুরু হয়েছে এর সংক্রামণ বৃদ্ধির হার। ভাইরাসের এই বিস্তার রোধে সরকারের পাশাপাশি সামাজিক সচেতনতার বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে প্রতিনিয়ত শাহরাস্তির স্কাউট সদস্যগণ।
বাংলাদেশে কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে সর্বোচ্চ সচেতনতা ও গুরুত্ব দিয়ে প্রতিরোধের চেষ্টা করছে সরকার। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে দেশের মানুষকে। বাসায় থেকে পুরো সমাজ ও বিশ্বকে বাঁচানোর এটায় যেন উপায়। দেশের এই ক্রান্তিকালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ও সরকারের নিদের্শনা অনুযায়ী বাসায় অবস্থান করা শিক্ষার্থীরা ঘরে বসে থাকলেও স্কাউট সদস্যরা ঘরে বসে না থেকে সামাজিক সচেতনতায় মাঠে নেমেছেন।
তাদের মূল কাজই হলো জনসেবা।
এই আত্মপ্রত্যয় নিয়ে কঠোর রোদেও মানুষকে সচেতন করে যাচ্ছে একঝাঁক নিঃস্বার্থ স্কাউট কর্মী।
চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার ঠাকুরবাজার ও কালিবাড়ীতে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে রোভার স্কাউট ও শাহরাস্তি উপজেলা শাখার সদস্যদের কার্যক্রম চোখে পড়ার মত। দায়িত্বে নিয়োজিত স্কাউট সদস্যরা প্রতিনিয়ত বাজারের এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত ঘুরাঘুরি করে জনসমাগম স্থানে মাইক নিয়ে সকলকে করোনা বিষয়ক সচেতনতার পাশাপাশি স্প্রের মাধ্যমে জীবাণুমুক্ত করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর সরকারী কলেজের রোভার স্কাউট গ্রুপের সদস্য নুরুন নবী ও ইব্রাহীম খলিল সবুজ, শাহরাস্তি উপজেলার স্কাউট সদস্য মাহিন হোসেন,ফয়সাল, সায়েম, অর্জুনসহ আরও অনেকে।
রোভার স্কাউট সদস্য ইব্রাহিম খলিল জানান, প্রশাসনের অনুমতি সাপেক্ষে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্ররা। এবং তারাও খুশি সচেতনতায় নিজেদেরকে অংশীদারিত্ব করতে পেরে।
বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাহ আলম ভূঁইয়া বলেন, সচেতনতার কাজে নিঃস্বার্থভাবে স্কাউট সদস্যদের কার্যক্রম সত্যিই প্রশংসনীয়। তারা নিজেদেরকে দেশের স্বার্থে বিলিয়ে দিয়েছেন। এমন ক্রান্তিলগ্নে ঘরে বসে না থেকে তারা রাস্তায় নেমেছেন আমাদের জন্যই। তাদের কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানাই।
বিভিন্ন সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা এবং বাজারের ব্যবসায়ীরাও স্কাউট সদস্যদের আন্তরিকতায় মুগ্ধ ও তাদের কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।
এ ব্যাপারে শাহরাস্তি থানার ওসি শাহআলম (এলএলবি) বলেন, শাহরাস্তির বিভিন্ন বাজারে স্কাউট সদস্যরা স্ব-প্রনোদিত হয়ে তাদের কার্যক্রম অব্যহত রাখছেন। তারা সকলকে সচেতনতার পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে অগ্রনী ভূমিকা পালন করছেন।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ