আজ ২৭শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১০ই এপ্রিল, ২০২১ ইং

মানিকগঞ্জ জেলা লকডাউন ঘোষণা

 

 

রনজিত কুমার পাল (বাবু)
নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ ঠেকাতে মানিকগঞ্জ জেলা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। রোববার (১৯শে এপ্রিল) বিকেলে জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের সুপারিশে এক গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই লকডাউনের ঘোষণা দেন। আজ সন্ধ্যা সাতটার পর থেকে এ আদেশ কার্যকর করা হবে।

জেলা প্রশাসনের গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস বিস্তার লাভ করায় লাখ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন ও লক্ষাধিক মানুষ মারা গেছেন। দেশের বিভিন্ন স্থানে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটছে। হাঁচি, কাশি ও সামাজিক দূরত্ব না মানার কারণে এর বিস্তার ঘটছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বে এ রোগের কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কৃত হয়নি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুযায়ী, এ রোগের একমাত্র প্রতিষেধক হলো পরস্পর থেকে দূরে থাকা। জনসাধারণের একে অপরের সঙ্গে মেলামেশা নিষিদ্ধ করা ছাড়া সংক্রমণ প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়। মানিকগঞ্জের আশপাশের জেলাগুলোতে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ওই সব জেলা থেকে মানিকগঞ্জে বেআইনিভাবে অনুপ্রবেশ করছেন অনেকে। এ কারণে আজ সন্ধ্যা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত মানিকগঞ্জ লকডাউন বলবৎ থাকবে।
জাতীয় ও আঞ্চলিক সড়ক, মহাসড়ক ও নৌপথে অন্য কোনো জেলা থেকে কেউ মানিকগঞ্জে প্রবেশ করতে বা জেলা থেকে অন্য কোনো জেলায় যেতে পারবেন না। এ ছাড়া জেলার ভেতরে এক উপজেলা থেকে অন্য উপজেলায় আসা-যাওয়া করা যাবে না। সব ধরনের গণপরিবহন ও জনসমাগম বন্ধ থাকবে। সন্ধ্যা ছয়টা থেকে সকাল ছয়টা পর্যন্ত কেউ ঘরের বাইরে যেতে পারবেন না।

তবে জরুরি পরিষেবা, চিকিৎসাসেবা, ওষুধ, কৃষিপণ্য, খাদ্যদ্রব্য সরবরাহ ও সংগ্রহ, সংবাদপত্র সেবা ইত্যাদি লকডাউনের আওতার বাইরে থাকবে। এই আদেশে জরুরি সেবাকাজে নিয়োজিত কর্মী ও যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে শিথিলতার কথা বলা হয়েছে। তবে অন্যদের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে জেলার সব প্রবেশ ও বহির্গমন স্থানে পুলিশ প্রশাসনের কড়া নিরাপত্তা থাকবে।
এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস বলেন, এই লকডাউনের আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গতকাল শনিবার মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন একজন শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে মানিকগঞ্জে বিভিন্ন উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাত।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ