আজ ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৬ই মার্চ, ২০২১ ইং

নওগাঁর আত্রাইয়ে অসহায়দের পাশে অভিরাম ছুটে চলেছেন ইউএনও 

মোঃ ফিরোজ হোসাইন নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

 

মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে নওগাঁর আত্রাইয়ে উপজেলা জুড়ে ১২ দিনের অঘোষিত ‘লক ডাউন’ চলছে। উপজেলায় সর্বত্র এখন জনমানবশূন্য। ফলে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ এখন চরম বিপাকে। ক্রমে নাভিশ্বাস উঠছে দিন মজুরদের।

তাই চলমান করোনা দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবেলায় ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর কর্তৃক বরাদ্দকৃত অর্থে কর্মহীন হতদরিদ্র ব্যক্তির মাঝে সাময়িক খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণে অভিরাম ছুটে চলেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ছানাউল ইসলাম।

হাজার কর্মহীন মানুষদের বাড়ি বাড়ি খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন তিনি। সঙ্গে আছেন প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নগেন্দু নারায়ণ চৌধুরী। আরও সহযোগিতায় রয়েছেন উপজেলা স্কাউট, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও সাংবাদিকগণ।

ঘরে থাকা হতদরিদ্র মানুষকে দেওয়া হচ্ছে যেসব নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী। খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে রয়েছে চাল, ডাল, তেল, লবণ, আলু , সাবান, মাস্ক। জনপ্রতি ১০ কেজি চাল, ১কেজি ডাল, ১লিটার তেল, ২কেজি আলু, ১কেজি লবন ও ১টি সাবান দেয়া হচ্ছে।

লক ডাউনের পর থেকে ইউনিয়ন থেকে ওর্য়াড পর্যায়ে এই কাজ শুরু হয়েছে। ৮টি ইউনিয়ন ঘুরে ঘুরে যেখানেই কর্মহীন-দিনমজুর মানুষ পাওয়া যাচ্ছে তাদেরকে সেখানেই বিতরণ করা হচ্ছে।

খেটে খাওয়া মানুষ যাতে অভুক্ত না থাকে সে জন্য সরকারের পক্ষ থেকে ১০ টাকা কেজি চাল দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি এলাকাবাসীকে নিরাপদ রাখতে উপজেলার বিভিন্ন রাস্তায় জীবানুনাশক ঔষধ ছিটানো হয়েছে। সামাজিক দূরুত্ব রাখতে জনসচেতনতায় হ্যান্ড মাইক চলছে তারই উদ্যোগে। এছাড়া করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ছানাউল ইসলাম বলেন, জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় খোঁজ খবর নিয়ে অতি দরিদ্রদের তালিকা তৈরি করে এরপর বাড়ি বাড়ি গিয়ে যাছাই করে সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, উপজেলার একজন মানুষও যাতে অভুক্ত না থাকে সে জন্য আমি দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের কাছে পর্যাপ্ত ত্রাণসামগ্রী আছে। এ মজুত চাহিদা অনুযায়ী আরও বাড়ানো হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ