আজ ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা ব্যবহৃত করছে না সুরক্ষা পোশাক,বাড়ছে ঝুঁকি

প্রিন্স ঘোষ

 

করোনাভাইরাসের কারনে দেশের প্রায় সব প্রতিষ্ঠান ও দোকান বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সরকার।করোনাভাইরাসসের সংক্রমণ ঠেকাতে সবাইকে মাস্ক পরার পরামর্শ এবং ঘরে থাকার কথাও বলা হয়েছে কিন্তু কাজের তাগিদে ঘর থেকে বের হতে হয় পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের। সাভার পৌর এলাকায় প্রায় দুইশ পরিচ্ছন্নতা কর্মী রয়েছে যাদের প্রতিনিয়ত বাইরে বের হতে হয় শহরের ময়লা পরিস্কার করতে কিন্তু অনেকের গায়ে নেই কোন সুরক্ষা পোশাক। অনেকেই ঠিক মতো মাস্ক ব্যবহার করছেন না । এতে অনেক আবাসিক বাড়ির বাসিন্দা আশংকা প্রকাশ করে বলেছেন পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা যদি কোন ভাবে আক্রান্ত হয় তবে অনেকেই তাদের মাধ্যমে আক্রান্ত হতে পারে তাই তাদের সুরক্ষিত থাকাটা অনেক জরুরী। এই ব্যাপারে দৈনিক আগামীর সংবাদের সাথে সাভার পৌরসভার মেয়র হাজী মোঃ আব্দুল গণির সাথে মুঠোফোনে কথা হয়। তিনি জানান সাভার পৌরসভায় প্রায় দুইশ পরিচ্ছন্নতা কর্মী রয়েছে , প্রত্যেকের জন্য আড়াই হাজার টাকার সুরক্ষা পোশাক , মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাবস কিনে দিওয়া হয়েছে এছাড়াও আরো প্রায় দুই লক্ষ টাকা ব্যয় করা হয়েছে তাদের জন্য। পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা কোন প্রকার সুরক্ষা ব্যবস্থা না নিয়ে কাজ করছেন এই ব্যাপারে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান পরিচ্ছন্নতা কর্মীদেরকে সচেতন করার চেষ্টা করছেন তিনি কিন্তু পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা দাবি করছেন সুরক্ষা পোশাক ও গ্লাবস পরে কাজ করতে অসুবিধা হয় বলে তারা তা ব্যবহার করেন না।
এই ব্যপারে বেশ কিছু পরিচ্ছন্নতা কর্মীর সাথে কথা বলতে চাইলে তারা কথা বলতে রাজি হয়নি।
সাভার ব্যংক কলোনির বাসিন্দা রিপন পাটোয়ারি জানান “এই ব্যাপারে কর্তীপক্ষকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি তা না হলে সংক্রমণ বাড়তে সময় লাগবে না।”

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ