আজ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুন, ২০২৪ ইং

সাভারে নৌকাডুবি: নারীসহ আরও ১ শিশুর মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ঢাকার সাভারে তুরাগ নদে বালুভর্তি বাল্কহেডের ধাক্কায় ১৮ জন যাত্রীসহ একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আরও এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।

শনিবার (৯ অক্টোবর) বিকেল ৫ টার দিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা বিভাগীয় উপ-পরিচালক দিন মনি শর্মা।

এছাড়া সাভারের বলিয়ারপুরের যাদুরচর এলাকার নয়ন পাম্পের পাশ থেকে আরও এক নারীর (৫০) মরদেহ উদ্ধার করেছে সাভার থানা পুলিশ।

এই নিয়ে মোট তিন শিশু ২ নারীসহ ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে আনও অন্তত ২ জন।

তবে উদ্ধার হওয়া শিশু ও ওই নারীর পরিচয় এখনও পাওয়া যায় নি। তাদের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস ও সাভার মডেল থানা পুলিশ ।

এর আগে শনিবার (৯ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৫ টার দিকে সাভারে আমিনবাজার তুরাগ নদের গাবতলী ও দ্বীপনগর পাড়ের মাঝনদীতে এঘটনা ঘটে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বড়দেশী এলাকার নারী চমক জানের দুই মেয়ে সোয়ালা (২০) ও রুপায়ন( ২৪) তাদের সন্তান জেসমিন (২), আরমান (৫) ও ইমরান (৪) এবং হোসাইনের দুই শিশু সন্তান মনি (৫), আলমিনা (৮) কে নিয়ে কয়লা আনলোডের কাজে যোগদানের জন্য নৌকা যোগে দ্বীপনগর পাড়ের দিকে যাচ্ছিলো।

নৌকাটি মোট ১৮ যাত্রী নিয়ে ভোরে রওনা করলে মাঝনদীতে বালুভর্তি বাল্কহেডের ধাক্কায় ডুবে যায়। এসময় ১১ জন সাতঁরে তীরে উঠতে পারলেও নারী ও শিশুসহ নিখোঁজ হয় ৭ জন।

খবর পেয়ে সাভার ও হেডকোয়ার্টার ফায়ার সার্ভিসসহ একাধিক ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে ৩ জনকে উদ্ধার করে। ঘটনার প্রায় ১৩ ঘন্টা পরে আরও এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এছাড়া যাদুরচর এলাকা থেকে আরও এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা বিভাগীয় উপ-পরিচালক দিন মনি শর্মা বলেন, নিখোঁজ আরও এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বাকিদের উদ্ধারে অভিযান চলমান রয়েছে।

সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক সুজন শিকদার বলেন, আমরা তুরাগ নদের যাদুরচর এলাকা থেকে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছি। তার প্রাথমিক সুরতহাল চলছে। বয়স আনুমানিক ৫০ বছর হবে। সুরতহাল শেষে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

নিখোঁজরা সবাই সিলেটের বাসিন্দা বলে জানা গেছে। তারা প্রতিবছরের এই সময় কয়লার কাজ করার জন্য সিলেট থেকে এই এলাকায় আসতেন। সকলেই আমিনবাজার ইউনিয়নের বড়দেশী গ্রামে ভাড়া থেকে এই কয়লার কাজ করতেন।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ