আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ ইং

সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম জামিনে মুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) আহ্বানে গত শনিবার (২২ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত ৫টি সংগঠন ও সিনিয়র সাংবাদিকের যৌথ সভা থেকে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তি ও মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানোর পর রোববার রাষ্ট্রের তরফে জামিন আবেদনের বিরোধিতা না করা এবং পুরো বিষয়টি সহানুভূতির সঙ্গে বিবেচনা করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পাঁচটি সাংবাদিক সংগঠন ও সিনিয়র সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।
আজ রোববার (২৩ মে) এক বিবৃতিতে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ জানান, পূর্ব কর্মসূচী অনুযায়ী রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা ও তার মুক্তির বিষয় নিয়ে আজ সকালে পাঁচ সংগঠনের নেতারা আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে পৃথকভাবে সাক্ষাৎ করেন। সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে ফোনে আলোচনা করেন। বিবৃতিতে সাংবাদিক সমাজের দীর্ঘদিনের দাবি ‘গণমাধ্যম কর্মী আইন’ অবিলম্বে সংসদে পাস ও ‘সাংবাদিক সুরক্ষা আইন’ প্রণয়নের দাবি নিয়ে দুই মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেন। মন্ত্রীরা শিগগিরই এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেন।
বিবৃতিতে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে গত সোমবার রোজিনা ইসলামের সঙ্গে অনভিপ্রেত ঘটনার পর সারাদেশের সাংবাদিক সমাজ নিজেদের মর্যাদা রক্ষায় যেভাবে খরতাপ উপেক্ষা করে আন্দোলন-লড়াই করে রোজিনা ইসলামকে মুক্ত করেছেন তার জন্য সাংবাদিক সমাজের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।
বিবৃতিদাতাদের মধ্যে রয়েছেন- ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু, জাতীয় প্রেসক্লাব সভাপতি ফরিদা ইয়াসমীন, বিএফইউজের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আবদুল মজিদ, ব্রডকাষ্ট জার্নালিষ্ট সেন্টারের চেয়ারম্যান রেজানুল হক রাজা ও সদস্য সচিব শাকিল আহমেদ, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান খান। এছাড়া সিনিয়র সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের মধ্যে বিএফইউজের সাবেক সভাপতি ইকবাল সোবাহান চৌধুরী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সাইফুল আলম, বিএফইউজের সাবেক মহাসচিব আবদুল জলিল ভুইয়া ও সাবেক ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব জাকারিয়া কাজল, ডিইউজের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আতিকুর রহমান চৌধুরী ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ