আজ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২৪ ইং

ফুল চুরির অপবাদ দিয়ে দুই শিশুকে বেধরক পেটালো শিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক :

সাভারের আশুলিয়ায় একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলে লাগানো ফুল চুরির অপবাদ দিয়ে দুই শিশুকে বেধরক পিটিয়ে জখম করেছে স্কুলটির শিক্ষক মেহেদী হাসান।

শুক্রবার (২১ মে) বিকেলে আশুলিয়ার শিমুলিয়া ইউনিয়নের পুকুরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় জখম হওয়া শিশুদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম মেহেদী হাসান (৩২)। তিনি ওই এলাকার শহিদুল ইসলামের মালিকানাধীন সুরুজ্জামান স্কুলের শিক্ষক। এঘটনায় স্কুলের মালিক শহিদুলকে জানালে তিনি ভুক্তভোগী পরিবারের সাথে খারাপ আচরণ করেন।

ভুক্তভোগী শিশুরা হলো- লালমনিরহাট জেলার কালিগঞ্জ থানার সেরাজুল ইসলামের ছেলে সিয়াম (১১)। সে ওই এলাকার কপিল মিয়ার বাড়িতে বাবা মায়ের সাথে ভাড়া থাকতো। অপর শিশু হলো সালসান (১২), সে ফরিদ মিয়ার ছেলে। তবে তাদের বিস্তারিত পাওয়া যায় নি।

ভুক্তভোগীর শিশু সিয়ামের বাবা বলেন, আমার ছেলেসহ কয়েক জন ওই স্কুল থেকে আধা কিলোমিটার দুরে খেলাধুলা করছিলো। তাদের স্কুলের কে যেন ফুল ছিড়েছে। এঘটনায় আমার ছেলেসহ সালমান নামের আরেক শিশুকে সন্দেহমূলক ধরে নিয়ে পুকুরপাড় থেকে ভিতরে নিয়ে বেধরক মারধর করে। পরে স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা শহিদুলকে জানালে তিনি বিচারের আশ্বাস না দিয়ে উল্টো খারাপ আচরণ করেন। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

এব্যাপারে স্কুলের শিক্ষক মেহেদী ও প্রতিষ্ঠাতা শহিদুলের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাদের কাউকেই পাওয়া যায় নি।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক (এসআই) তামিমা বলেন, এখনো শিশু নির্যাতনের কোন অভিযোগ দায়ের হয় নি। অভিযোগ হলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ