আজ ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জুন, ২০২৪ ইং

কৃষকের ধান কেটে দিলো ছাত্রলীগ

জাহিদুল ইসলাম রনি, গাজীপুর সিটি প্রতিনিধি:

গাজীপুর মহানগর ২৪ নং ওয়ার্ডের সলু মিয়া নামের এক দরিদ্র কৃষকের বোরো ধান কেটে তার নিরাপদ স্থানএ পৌঁছে দিয়ে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দরা।
০৭ মে শুক্রবার সকাল ১২টা থেকে ধান কাটা শুরু করে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ১ বিঘা জমির ধান কাটেন তারা। গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ফয়জুর রহমান ফহাদের নেতৃত্বে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ,মাদ্রাসা ও একদল ছাত্রলীগ কর্মী এ ধান কাটা কর্মসূচিতে অংশ নেয়।
স্বেচ্ছাশ্রমে এ ধান কাটা কর্মসূচিতে অংশ গ্রহনকারীদের মধ্যে-মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ফয়েজুর রহমান ফাহাদ, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা মার্টিন রোজারিও,২৪ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগ সভাপতি পদপ্রার্থী বর্ষণ, মহানগর যুবলীগ নেতা জসিম ২৫ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতা পার্থ, ওমর ফারুক, ছাত্রলীগ কর্মী শৈশব, অন্তু, অর্ক্য,জাহিদ,প্লাবন সহ আরো অনেকেই।
দরিদ্র সলু মিয়া বলেন, আমি দীর্ঘদিন থেকে অসুস্থ, করোনায় টাকা পয়সাও তেমন না থাকায় আমি ছাত্রলীগের ছেলেদের সাথে যোগাযোগ করি এবং তারা এসে আমার ধান কেটে দেয় এবং আমার বাড়ির উঠানে পৌঁছে দেয়, ছাত্ররা আমার ধান কেটে দেওয়ায় আমি খুব উপকৃত হলাম। তারা আমার ধান কেটে নাদিলে টাকার অভাবে সঠিক সময়ে ধান কাটা সম্ভব হতোনা। ফলে হয়তোবা অনেক ধান নষ্ট হতো।
মহানগর ছাত্রলীগ নেতা ফয়জুর রহমান ফাহাদ বলেন, দেশজুড়ে ধান কাটা শ্রমিকের মজুরি তুলনামূলকভাবে বেশি হওয়ায় ও দেশে করোনা ভাইরাস এর কারণে অনেক গরীব অসহায় হতদরিদ্র কৃষক শ্রমিকের অভাবে ধান কাটতে পারছেন না। তাই গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধান মন্ত্রী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে, গাজীপুর মহানগরের মানবিক মেয়র অালহাজ্ব জাহাঙ্গীর অালমের সার্বিক সহয়াতায় এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের নেতৃবৃন্দের পরামর্শ মোতাবেক আমরা দরিদ্র কৃষকদের ধান কেটে দেওয়ার কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। দেশ ও জাতির উন্নয়নে আমরা এরকম অসহায় বর্গাচাষী তথা দরিদ্র কৃষকদের পাশে আছি এবং ভবিষ্যতেও তাদের পাশে থাকবো ইনশাঅল্লাহ।
উল্লেখ্য, ২০২১সালে তারা অনেকের ধান কেটে দেয়,২০২০ সালে ফয়জুর রহমান ফাহাদের নেতৃত্বে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও অধ্যয়নরত ছাত্রলীগ কর্মীদের নিয়ে জন দরিদ্র কৃষকের জমির ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ