আজ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুন, ২০২৪ ইং

কালিয়াকৈরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫

মো. ইলিয়াস চৌধুরী, কালিয়াকৈর প্রতিনিধি :

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের হাটুরিয়াচালা এলাকার একটি কারখানার আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় উভয় গ্রুপের কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ফজলে রাব্বি হোসেন (২৮)-কে
এবং ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বায়েজিদ (১৮)-কে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

আহত অন্যান্যদের মধ্যে মোমিন হোসেন, সাইফুল, জাকির হোসেন উপজেলার বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের হাটুরিয়াচালা এলাকার করতোয়া নামক একটি কারখানার জন্য গত বছর ধরে ভবন নির্মাণ ও বাউন্ডারি দেয়ালের কাজ দীর্ঘদিন ধরে হাটুরিয়াচালা গ্রামের যুবলীগ কর্মী নাহিদ মন্ডলসহ কয়েকজন করে আসছিলো। সেখানে একই এলাকার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের তাঁতি লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলামসহ ৫-৬ জন কর্মী দুপুরে ওই কারখানায় গিয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়ে তারাও ঠিকাদারী কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন। এসময় নাহিদ গ্রুপের সমর্থক ও সাইফুল ইসলামের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

এসময় নাহিদ মন্ডলসহ লোকজন হাটুরিয়া চালা গ্রামের একটি মসজিদের মাইকে কারখানায় ডাকাতি হচ্ছে বলে ঘোষণা করা হলে গ্রামের অর্ধশতাধিক লোকজন এসে ওই কারখানায় হাজির হয়। পরে উভয়গ্রুপ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়াসহ একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।
খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ আশপাশের আরো অর্ধশতাধিক লোক ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই পক্ষকে বুঝিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দুই গ্রুপের হামলায় ফজলে রাব্বি, বায়েজিদ, মোমেন হোসেন, সাইফুল ইসলাম, জাকিরসহ ৫ জন আহত হয়।

এ ঘটনায় কারখানার পক্ষে করতোয়া নামের কারখানার প্রধান নিরাপত্তা কর্মী বীর মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান মিজান বাদী হয়ে ছয়জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞত আরও ১০-১২ জনকে উল্লেখ করে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

ওই কারাখানার ঠিকাদার নাহিদ অহমেদ জানান, কারখানার কাজ কারখানা কর্তৃপক্ষ করছেন। সেখানে তাঁতি লীগের নেতা সাইফুলসহ কয়েকজন এসে কাজে বাঁধা দিলে সংঘর্ষ হয়।

এ ব্যাপারে মধ্যপাড়া ইউপি সদস্য সারোয়ার হোসেন জানান, দুই গ্রুপ কারখানার কাজ করাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এই দুই গ্রুপের কর্মীরা সকলেই সরকার দলীয় নেতাকর্মী। তবে বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ