আজ ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জুন, ২০২৪ ইং

সাভারে শ্রমিকলীগ নেতাকে হত্যা চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

সাভারে পূর্ব শত্রুতার জেরে এনামুল কবির (৫৪) কে অতর্কিত হামলা করে হত্যা চেষ্টা করেছে একাধিক মামলার আসামি টুন্ডা আরিফ ও তার বাহিনী। এসময় এনামুল কবির গুরুতর আহত হন।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় সাভারের পৌর এলাকার ৯ নং ওয়ার্ড কমিশনারের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে রাস্তার ওপর এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী।

আসামিরা হলেন- কচি মিয়ার ছেলে টুন্ডা আরিফ (৩৪), সুমন (৩৪), সােলেমান কবিরের ছেলে তানজিল (২৬), সজিব (২৭), আরশাদ আলীর ছেলে ইমন (২২), রাজিব (২৩), মহা-অজাক, আরশাদ আলীর ছেলে বাহাদুর (২৪)। তারা সবাই সাভারের আনন্দপুর মধ্যপাড়া এলাকার বাসিন্দা। এছাড়া আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে জাহিদ (২০), লিমন (২১) সাভারের আনন্দপুর এলাকার ভাড়াটিয়া ও সাগর (৩৩), ঠিকানা-অজ্ঞাত, সান (২১), সালমানের ছেলে জসীম (২৪), হবি শেখের ছেলে সাখা (১৯), শিহন (২৮) ও রেজা (৩০)।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ওই এলাকায় রাস্তার ওপর এনামুল কবিরকে দেখিতে পেয়ে পূর্ব শক্রতার জেরে আসামিরা গতিরোধ করে। পরে কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই আসামিরা মারাত্মক দেশীয় ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সজ্জিত হয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। ঘটনার একপর্যায়ে বিবাদী টুন্ডা আরিফ হত্যার উদ্দেশ্যে তার কোমর থেকে রিভালবার বের করে রিভালবারের পিছনে লােহার বাট দিয়া ভুক্তভোগীর মাথার উপরে ডান পাশে মারাত্মকভাবে আঘাত করে। পরে সুমন, তানজিল ও সজিবসহ সন্ত্রাসীরা এস.এস পাইপ, কাঠের লাঠি দিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলােপাথারী আঘাত করে নীলাফুলা জখম করে। অন্যান্য আসামীরা এলােপাখারী কিল, ঘুষি ও লাথি মেরে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলাফুলা জখম করে। পরে তার ডাকচিৎকারে আশপাশের লােকজন এগিয়ে আসে। এসময় টুন্ডা আরিফ সুযােগমত পেলে প্রান নাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহত এনামুল কবির সাভার পৌর শ্রমিক লীগের আহবায়ক এর দায়িত্ব পালন করছেন।

সাভার মডেল থানার ওসি এএফএম সায়েদ জানান মামলা দায়ের হয়েছে আসামীদের গ্রেফতার এর অভিযান চলছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ