আজ ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ইং

সাভারে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতার উপর হামলা ও ফাঁকা গুলি

নিজস্ব প্রতিবেদক :

সাভারের পৌরসভা এলাকায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও ইন্টারনেট ব্যবসায়ী আব্দুর রব খান সজিব (৩০) চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে হামলা চালিয়ে ফাঁকা গুলি ছুড়ে ও মারধর করে সন্ত্রাসীরা। এতে নারীসহ একই পরিবারের তিন জন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১ টার দিকে সাভার পৌরসভার রাজাশন এলাকা এ ঘটনা ঘটে।

পরে ভুক্তভোগী আব্দুর রব খান সজিব তিন জনের নাম উল্লেখ্য করে সাভার মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে।

আহতরা হলো-সাভারের রাজাশনের বাসিন্দা সেলিম (৪৪) ও তার স্ত্রী ফরিদা ইয়াসমিন (৪৮) এবং তাদের সন্তান আব্দুর রব খান সজিব। সজিব সাভার উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক।

অভিযুক্তরা হলো- সাভারের সাহীবাগ এলাকা মৃত জাকারিয়ার ছেলে মোঃ ইউনুস খান পারভেজ (৩৭), রাজাশনের বাসিন্দা আব্দুর রহিম মিয়ার ছেলে আল মামুন (৩৩) ও সাভারের দেওগা এলাকার সামসুল (৩০)।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সাভারের রাজাশন এলাকায় ইন্টারনেটের ব্যবসা করেন সজিব। কিছুদিন দিন আগে সজিবের কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে পারভেজ। চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে আজ বুধবার সকালে সজিবের বাড়িতে গিয়ে তার বাবা সেলিম ও মা ফরিদা ইয়াসমিনের উপর হামলা চালায় পারভেজসহ আরও তিন জন। এসময় সজিবকে না পেয়ে তার বাব সেলিমকে মারধর করে। এসময় সজিব চলে আসলে তাকেও মারধর করে। তাদের দুইজনকে রক্ষা করতে গেলে ফরিদা ইয়াসমিনকেও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মারধর করে পারভেজ বাহিনী। পরে চলে যাওয়ার সময় তারা পিস্তল থেকে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুড়ে মৃত্যুর হুমকি দিয়ে যায়। হামলার বিষয়ে ইউনুস খাঁন পারভেজ এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি বা আমার কোন লোক সজিব এর হামলা করে নাই। তিনি আরও বলেন এই সব বানানো ঘটনা, আপনারা তদন্ত করে সঠিক সংবাদ প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসাদুজ্জামান বলেন, এরকম একটি অভিযোগ থানায় হয়েছে আমি শুনেছি। তবে এখনো পর্যন্ত আমার কাছে আসেনি। আসলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ