আজ ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং

আশুলিয়ায় এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক 

আশুলিয়ার গৌরিপুর নামক এলাকায় এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল জাকিয়া আক্তার (১৫) নামে এক কিশোরী। শুক্রবার সাভার উপজেলার আশুলিয়া ইউনিয়ন গৌরিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। জাকিয়া আক্তার গৌরিপুর হাজী শাহাজান এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া মোঃ জাহিদুলের মেয়ে।স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গৌরিপুর বাড়ী ওয়ালা হাজী শাহাজান এর ভাড়াটিয়া জাহিদুল এর নাবালিকা মেয়ে জাকিয়া আক্তার। সাথে পাশ্ববর্তী এক ছেলের বিয়ে ঠিক হয়। শুক্রবার
বিয়ের আয়োজনের ব্যস্ত ছিল মেয়ের পরিবার। স্থানীয়রা বিষয়টি শুক্রবারে আগামী সংবাদ এর সম্পাদক এর কাছে খবর আসলে উপজেলা
এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপে চান
দ্রুত এসময় আশুলিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়াড জনপ্রতিনিধি সোরহাব সোসেন কে জানান পরে বিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রেশন কপি অনুযায়ী মেয়েটির বয়স ১৫ বছর হওয়ায় জন্ম সনদ না দেখিয়ে একটি নোটারী কপি দেখান জাকিয়ার পরিবার। মেয়েটি নাবালিকা হওয়ায় বাধ্য বিবাহ বন্ধ করে দেন প্রশাসন।

এসময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত থেকে বাধ্য বিবাহের প্রতিবাদ করেন। পরে মেয়ের বাবা জাহিদুল অঙ্গিকার করেন প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তার মেয়েকে বিয়ে দিবেন না। পরে ৫নং ওয়াডের মেম্বার সোরহাব হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, আমরা খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নিয়েছি। কিন্তু কিছু অসাধু আইনজীবিরা অপ্রাপ্ত বয়স্ক ছেলে মেয়েদের বয়স নোটারীর মাধ্যমে বৃদ্ধি করে প্রাপ্ত বয়স্ক বানিয়ে দেন যা আইনের পরিপন্থী। এদের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। কোথাও কোন বাল্যবিবাহকে প্রশ্রয় দেয়া হবেনা বলেও জানান তিনি।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ