আজ ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

বন বিভাগের শত কোটি টাকা মুল্যের জমি নিয়ে ত্রি-মুখি অবস্থান

শামীম হোসেন : নিজস্ব প্রতিবেদক

 

সাভারে বন বিভাগের শত কোটি টাকা মুল্যের জমি নিয়ে বন বিভাগ ও এলাকাবাসী এবং দখলকারীরা মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছেন। বন্ধুক ধারালো অস্ত্র ও লাঠি সোটা নিয়ে ত্রি -মুখি অবস্থান নেওয়ায় যেকোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করেছেন এলাকাবাসী।
বুধবার(৪মার্চ) দুপুরে সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের ছোট কালিয়াকৈর এলাকায় এঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসী বলছে বিরুলিয়ার ছোট কালিয়াকৈর এলাকায় বন বিভাগের প্রায় শত কোটি টাকা মুল্যের এক’শ ৩৭. ৫১ একর জমি রয়েছে। সেই জমি থেকে গত কয়েকদিন আগে ২৬ একর জমি ভূমি সংস্কার বোর্ড থেকে লিজ নেন রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার কামরুল ইসলাম (আল আমিন) নামের এক ভূমি দস্যু। এসময় তিনি বন বিভাগের জমিতে থাকা বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে জমিতে সিমানা প্রাচীর নির্মাণ করেন। পরে বন বিভাগের কর্মকর্তারা খবর পেয়ে বুধবার সকালে ওই জমিতে থাকা সিমানা প্রাচীর ভেঙ্গে ফেলে দিলে লিজ নেওয়া ব্যক্তির লোকজন, এলাকাবাসী ও বন বিভাগের কর্মকর্তারা মুখোমুখি অবস্থান নেন অস্ত্র নিয়ে। যেকোন সময় এলাকাবাসী রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করেছে । এলাকাবাসী বন বিভাগের পক্ষ নেওয়ায় যেকোন সময় সংঘর্ষের আশঙ্কা করেছেন তারা। এঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।
এবিষয়ে ঢাকা বন বিভাগের কালিয়াকৈর রেঞ্জ কর্মকর্তা আজাহারুল ইসলাম বলেন ভূমি দস্যু আল আমিন বন বিভাগের জমি লিজ না এনে জমি দখল করে সিমানা প্রাচীর নির্মাণ করা শুরু করেন বন বিভাগের জমিতে থাকা বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কর্তন করে। এসময় বন বিভাগের কর্মকর্তারা জমিতে কাজ করা এক নির্মাণ শ্রমিককে আটক করেছে। বন বিভাগের কর্মকর্তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ও ভূমি দস্যুদের কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন। তিনি আরও বলেন কিভাবে ভূমি সংস্কার বোর্ড বন বিভাগের জমি লিজ দেন।
এদিকে বুধবার দুপুরে ওই বন বিভাগের জমি পরিদর্শন করেন ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান আবুদল মান্নান ও ঢাকা জেলা অতিরিক্ত প্রশাসন রাজস্ব আবু ফাতেহ মোঃ শফিকুল ইসলামসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা। পরে তারা কুমারখোদা মৌজার বন বিভাগের জমিতে লিজ নেওয়া আবাসন প্রকল্প পরিদর্শন করেন।
এবিষয়ে ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান আবুদল মান্নান বলেন তিনি লিজ নেওয়া সরকারী জমি পরিদর্শনে এখানে এসেছেন অন্য বিষয়ে তিনি কথা বলতে রাজি হননি।
সাভার মডেল থানায় দুই পক্ষের লিখিত অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ