আজ ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৭শে মে, ২০২৪ ইং

আজ বসতে পারে পদ্মা সেতুর ৩৪ তম স্প্যান

মোঃ আহসানুল ইসলাম 

পদ্মা সেতুর ৭ ও ৮ নম্বর পিলারের ওপর আজ রবিবার ৩৪ তম স্প্যান বসানোর প্রস্ততি চলছে,অনুকূল আবহাওয়া থাকা ও কারিগরি জটিলতা না থাকাসহ সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে আজই ৩৪ তম স্প্যানটি বসানো সম্পন্ন হবে। যার মাধ্যমে দৃশ্যমান হবে সেতুর  হাজার ১০০ মিটার।

৩৩ তম স্প্যান বসানোর মাত্র পাঁচ দিনের মাথায় শনিবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৩৪ তম স্প্যানটি ভাসমান ক্রেন দিয়ে পিলারের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্প ব্যবস্থাপক (মূল সেতু) দেওয়ান মোঃ আব্দুল কাদের জানান,আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আজ রবিবার ২৫ অক্টোবর পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের  ও  নম্বর পিলারের ওপর বসানো হবে ৩৪ তম স্প্যানটি। 

৩৪ স্প্যান বসানোর মাধ্যমে সেতুর  হাজার ১০০ মিটার দৃশ্যমান হবে।এর আগে গত ১৯ অক্টোবর ৩ ও ৪ নম্বর পিলারের ওপর ৩৩ নম্বর স্প্যান বসানো হয়। আগামী ৩০ অক্টোবর পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের  ২ ও ৩ নম্বর পিলারের ওপর ৩৫তম স্প্যান  বসানোর পরিকল্পনা আছে।একইভাবে ৪ নভেম্বর ৩৬ তম স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানান আব্দুল কাদের।

অর্থ্যাৎপ্রায় পাঁচ দিন পর পর স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। যেন ডিসেম্বরের মধ্যে সব স্প্যান বসানোর কাজ শেষ হয়। ৩৪তম স্প্যান বসানোর পর বাকি থাকবে মাত্র সাতটি স্প্যান। সেতুর মোট ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসবে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে ৬.১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতল পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। ৩০ হাজার ১৯৩ দশমিক ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে গৃহীত এই প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৮১ দশমিক ৫০ ভাগ এবং আর্থিক অগ্রগতি ৮৭ দশমিক ৫৫ ভাগ। নদী শাসন কাজের বাস্তব অগ্রগতি ৭৪ দশমিক ৫০ ভাগ। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ পর্যন্ত মোট ব্যয় হয়েছে ২৩ হাজার ৭৯৬ দশমিক ২৪ কোটি টাকা।

মূল সেতু নির্মাণের কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড (এমবিইসি) এবং নদী শাসনের কাজ করছে চীনের আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন। 

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ