আজ ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুন, ২০২২ ইং

আশুলিয়ায় আবারও গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ৫

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ঢাকার আশুলিয়ায় আবারো গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী নিজেই।

শুক্রবার (৯ অক্টোবর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুর রাশিদ। এর আগে শনিবার (৮ অক্টোবর) রাতে আশুলিয়ার রোস্তমপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো, আশুলিয়ার রোস্তমপুর এলাকার সালাম শেখের ছেলে সাইফুল ইসলাম (১৮) একই এলাকার আদম সরকারের ছেলে অন্তর (১৯), সনাতন সাহার ছেলে জতির্ময় সাহা (২০), কৃষ্ণ সাহার ছেলে পাপ্পু সাহা (১৯) ও মনোরঞ্জন সাহার ছেলে মিলন (২১)।

ভুক্তভোগীর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, প্রায় দেড় মাস আগে সাইফুল ও অন্তরের সাথে ভুক্তভোগী ওই নারীর পরিচয় হয়। এই পরিচয়েই রাজধানীর মিরপুরের এই নারী তাদের সাথে মাঝেমধ্যেই কথা বলতো। পরে গত ২৩ সেপ্টেম্বর বাসা ভাড়া না দিতে পারার কথা বলে সাইফুল ও অন্তরের কাছে কিছু টাকা ধার চান তিনি। টাকা দেওয়ার কথা বলে ওই নারীকে রোস্তমপুর এলাকায় ডেকে নেয় সাইফুল ও অন্তর। এ সময় তাকে একটি ঝোপের মধ্যে নিয়ে আটকরাসহ ৭ জন ও অজ্ঞাত আরো ৩ জন ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে। পরে তাকে বাসায় যাওয়ার ভাড়া বাবদ ১ হাজার টাকা দিয়ে তার মোবাইল রেখে দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে তাড়িয়ে দেয়। ওই নারীকে মোবাইল ফেরত দেওয়ার কথা বলে গত ২৮ সেপ্টেম্বর তাকে ডেকে নিয়ে আবার দলবদ্ধ ধর্ষণ করে। পরে তাকে বার বার ভিডিওর কথা বলে জিম্মি করে একই এলাকায় আসার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। কোনো উপায় না পেয়ে ওই নারী তার স্বামীকে বিষয়টি খুলে বললে গতকাল ৮ অক্টোবর রাতে আশুলিয়া থানায় অভিযোগ করে ভুক্তভোগী। পরে ওই নারীর দেওয়া তথ্য মতে অভিযান চালিয়ে ৫ জনকে আটক করে পুলিশ। এ ঘটনার সাথে জড়িত ১০ জনের মধ্যে ৭ জনের পরিচয় জানতে পেরেছে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুর রাশিদ জানান, এ ঘটনায় ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পুলিশ আরও জানান আসামীদের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ