আজ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুন, ২০২৪ ইং

শ্রমিকলীগ সম্পাদকের হাত-পায়ের রগ কর্তনের দায়ে ভাইস চেয়ারম্যান আটক

মোঃ ফিরোজ হোসাইন, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম
পূর্ব শত্রুতার জের উল্লেখ করে ১২ জনের নাম এবং অজ্ঞাত নামা ৪/৫ জনকে আসামি করে আহতের স্ত্রী সাবরিনা সুলতানা ঝর্ণা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলার পরিকল্পনাকারী হিসাবে উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে আটক করে সোমবার সকালে নওগাঁ জেল হাজতে পাঠিয়েছে আত্রাই থানা পুলিশ।
আটকের পূর্বে মমতাজ জানান, রাজশাহীর বাগমাড়া উপজেলায় ঠিকাদারি ৬৫ লাখ এবং ধারকৃত ২ লাখ মোট ৬৭ লাখ টাকা সরদার সোয়েবের কাছ থেকে পাবেন তারা। আমি ও আমার ছেলে রাব্বী বহুবার অনুরোধ এবং দেন-দরবার করেও টাকা পাইনি।

আত্রাই থানা সূত্র জানায়, ঘটনার দিন সকাল আনুমানিক ১১টায় উপজেলা নিউমার্কেটে ঠিকাদারি অফিসকক্ষে আসেন সোয়েব। হঠাৎ মির্জা রাব্বী দলবল নিয়ে সরদার সোয়েবের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যান। বাজারের লোকজন টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়। সোয়েবের পরিবার জানায়, বর্তমানে ঢাকায় চিকিৎসাধীন এবং মোটামুটি সুস্থ আছেন তিনি।

আত্রাই থানা ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, আহতের স্ত্রী সাবরিনা বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত নামা ৪/৫ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন। মামলার আসামি মমতাজকে আটক করে সোমবার সকালে নওগাঁ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ