আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ফেনীর বাজারে করোনার প্রভাব

আলাউদ্দিন সবুজ. ফেনী প্রতিনিধি 

 

বাজারে হুট করে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। খুচরা বাজারে ২০০ টাকা কেজির পেঁয়াজের দাম কমতে কমতে যখন ৩৫ থেকে ৪০ টাকার মধ্যে আসায় ক্রেতাদের মধ্যে স্বস্তি ফিরেছে। ঠিক সেই সময়ে করোনার প্রভাবে ফের একদিনেই বেড়ে গেলো কেজি প্রতি ২০ থেকে ২৫ টাকা। এখন খুচরা বাজারে কেজিপ্রতি ৫০ থেকে ৫৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ পরিস্থিতি শুধু পেঁয়াজের-ই নয়, সবধরনের নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছেই। এ পরিস্থিতিতে বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে জেলা প্রশাসনও অভিযান অব্যাহত রেখেছে।
বিভিন্ন সূত্র জানায়, করোনাভাইরাসের আতংকে খাদ্য সংকটের দুর্ভাবনায় চলছে নিত্যপণ্য মজুত। সরকারের পক্ষ থেকে খাদ্যপণ্যের ঘাটতি নেই বলে বারবার ঘোষণা দিলেও মানুষ বাজারে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে। শনিবার ফেনী বড় বাজার, সুলতান মাহমুদ পৌর হকার্স মার্কেট, মুক্ত বাজার ও মহিপাল বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, প্রতিকেজি রসুন প্রকারভেদে ১শ ৬০ ও ১শ ৮০ টাকা, চিনি ৭০ টাকা. আদা ২শ টাকা, আলু ২২ টাকা, টমেটো ৩০ টাকা, গাঁজর ২৫ টাকা, বরবটি ৫০ টাকা, করলা ৫০ টাকা, শসিন্দা ৪০ টাকা, বেগুন ৩০ টাকা, ঢেঢশ ৫০ টাকা, লতি ৫০ টাকা, শসা ৩০ টাকা, কাঁচা মরিচ ৪০ টাকা, সীম ৪০ টাকা, কুমড়া ২০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।
এদিকে নিত্যপণ্যের দাম কমিয়ে আনতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে অভিযান টের পেয়ে অসাধু ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ করে পালিয়ে যায়। শনিবার ফেনী বাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে বের হন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রাজীব দাশ পুরকায়স্থ। মূল্য তালিকায় দাম লিখে প্রদর্শন না করা ও বেশি দামে চাল বিক্রি করায় মেসার্স আরিফ ট্রেডার্সকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক রাজীব দাশ পুরকায়স্থ জানান, বাজার নিয়ন্ত্রনে রাখতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ