আজ ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবী (সা:)কে অবমাননা ও ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে ,সিরাজদিখানে মানববন্ধন, বিক্ষোভ সমাবেশ 

 

মোঃ আহসানুল ইসলাম আমিন ,মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  

মহানবী মুহাম্মদ (সা:) কে নিয়ে ফ্রান্সে ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শণ করার প্রতিবাদে, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ মুন্সীগঞ্জ জেলা ও ঢাকা দক্ষিণ শাখার যৌথ আয়োজনে মানববন্ধনবিক্ষোভ সমাবেশ  কর্মসূচি বৃহস্পতিবার সকালে সিরাজদিখান উপজেলার কুচিয়ামোড়া এলাকার ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসয়ে সংলগ্ন রাস্তায় অনুষ্ঠিত হয়।

বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর সকাল ১০ টা থেকে বেলা ১১ টা পযন্ত অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূতিতে অংশ গ্রহণ করেন ধর্মপ্রাণ হাজারো মুসলমান। 

মুন্সীগঞ্জ জেলা ও ঢাকা দক্ষিণ শাখা জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম এর মানববন্ধনে মুন্সীগঞ্জ জেলা জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম এর সাধারণ সম্পাদক হযরত মাওলানা বশীর আহমেদ এর সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামপুর কামিল মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা মুহিউদ্দিন আল হুসাইনী। 

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতী মাহবুবুর রহমানের পরিচালনায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেয়াইন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আশ্রাফ আলীজমিয়তে উলামায়ে ইসলাম জেলা শাখার যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হযরত মাওলানা জিয়াউল হক কাসেমীকেরাণিগঞ্জ থানা শাখার সভাপতি মুফতী আফজাল হুসাইন রহমানীশ্রীনগর থানা শাখার সভাপতি মুফতী দ্বীন মোহাম্মদমুন্সীগঞ্জ জেলা যুব জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম সভাপতি মো. আসাদুজ্জামান প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেনআমাদের নবী মুহাম্মদ (সা:) কে নিয়ে ফ্রান্স যে ব্যাঙ্গচিত্র (কার্টুন)প্রদর্শণ করেছেতা অনতিবিলম্বে সরিয়ে বিশ্বের মুসলমানদের কাছে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় সারা বিশ্বের মুসলমানরা বরদাস্ত করবে না। কারণ বিশ্বের প্রায় দুইশো কোটি মুসলমানদের হৃদয়ে বড় আঘাত করেছে। প্রত্যেক মুসলমান নবী মুহাম্মদ (সা:) কে জান-মালপিতা-মাতা-সন্তান থেকেও আরো বেশি ভালোবাসেন। 

বক্তারা আরো বলেন,আমাদের সরকারের প্রতি অনুরোধ যেহেতু এ দেশে সংখ্যা গরিষ্ট মুসলমান তাই রাস্ট্রীয়ভাবে প্রতিবাদ জানানো এবং ফ্রান্সের রাস্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করা হউক।

তাছাড়া প্রতিটি মুসলমানদের ফ্রান্সের পন্য বর্জন করার আহবান জানানো হয়। যদি কোন ব্যবস্থা না নেওয়া হয় তবে আগামীতে আরো কঠোর কর্মসুচী ও ফ্রান্সের দূতাবাস ঘেরাও করা হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ