আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ ইং

ফটিকছড়ির নাজিরহাটে যুবককে ছুরিকাঘাত, আটক ১

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি :

ফটিকছড়ি উপজেলার নাজিরহাটে দুই জনের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে ছুরিকাঘাতে বাবুল (৩৬) নামে এক যু্বক গুরুতর আহত হয়েছে। শনিবার (১৭ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে নাজিরহাট সিটি সেন্টারের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত বাবুল হাটহাজারী উপজেলার গুমানমর্দন ইউনিয়নের বালুখালী এলাকার জনৈক ইলিয়াসের পুত্র। তবে তিনি দীর্ঘদিন ধরে নাজিরহাটের গুল মোহাম্মদ তালুকদার বাড়িস্থ শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করে আসছেন বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুর ১টার দিকে নাজিরহাট বাজার সিটি সেন্টারের সামনে বাবুলের সাথে সাকিব নামে স্থানীয় এক যুবকের কথা কাটাকাটি হয়। পরে তা হাতাহাতিতে রূপ নেয়। এক পর্যায়ে বাবুলকে বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় সাকিব। পরে আহত বাবুলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় পথচারীরা। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম। এদিকে ঘটনার এক ঘন্টার মাথায় ছুরিকাঘাতকারী যুবক সাকিবকে (১৮) নাজিরহাট ঝংকার এলাকা থেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। আটক সাকিব নাজিরহাট বাজার সংলগ্ন চুন্নার বাপের বাড়ির জনৈক আবু তৈয়ব ড্রাইভারের পুত্র।

তবে কী কারণে বাবুলকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে তা নিশ্চিত না হওয়া গেলেও চোরাই মোবাইলের লেনদেন নিয়ে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। অন্যদিকে ছুরিকাঘাতকারী যুবক সাকিবের বড় ভাই সাগর দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ইয়াবার ব্যবসার সাথে জড়িত। বড় ভাইয়ের দাপটে সাকিবও এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

এ ব্যাপার ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ইতোমধ্যে ছুরিকাঘাতকারী সাকিবকে স্থানীয়দের সহায়তায় আটক করতে সক্ষম হয়েছি। তিনি আরো বলেন, কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ