আজ ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ ইং

পরিবারের ৪ সদস্যদের অচেতন করার অভিযোগ, দুস্কৃতিকারী আটক

খ.ম. নাজাকাত হোসেন সবুজ বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ

বাগেরহাট জেলার, মোল্লাহাটে প্রেম ও বিয়েতে রাজি না হওয়ায় এক কলেজ ছাত্রীকে অপহরণের উদ্দেশ্যে অত্যন্ত কৌশলে এক দোকানের হালখাতার বিরিয়ানীর সাথে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে ওই পরিবারের সদস্যদের অচেতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে উজ্জল ঢালীসহ কয়েক যুবকের বিরুদ্ধে।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় অচেতন করার এ ঘটনায় উজ্জল ঢালীকে সহযোগিতা করার অভিযোগে মঙ্গলবার রাতে ইমন নামে এক যুবককে আটক করেছে মোল্লাহাট থানা পুলিশ। এঘটনায় ওই পরিবারের কর্তা প্রদীপ বাদী হয়ে মোল্লাহাট থানায় মামলা করেছেন। আটক যুবককে ওই মামলায় আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্থ সুত্রে জানাগেছে, এক কলেজ পড়ুয়া ছাত্রীকে বিভিন্ন সময়ে প্রেম ও বিয়ের প্রস্তাব দেয়াসহ উত্ত্যক্ত করে একই এলাকার বলাই ঢালীর বখাটে ছেলে উজ্জল ঢালী (২০)। ওই ঘটনায় একাধিকবার তার মা-বাবার কাছে অভিযোগ করা হয়েছে।

এরই মাঝে গত শুক্রবার (ভিকটিম পরিবারের) বাড়ি সংলগ্ন শরিফুলের দোকানের হালখাতা হয়। ওই হালখাতার বিরিয়ানীর সাথে কৌশলে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে দেয়া হয় কলেজ ছাত্রী রিংকির মা’র কাছে। তখন বাড়িতে উপস্থিত ৪সদস্য ফুলমালা (৬০), হিমলতা (৩৬), রিংকি (১৭) ও ঐশ্বেনি (৭) ওই খাবার খেয়ে অচেতন হয়ে পড়ে। এর কিছুক্ষণের মধ্যে প্রদীপ বাড়িতে এসে সকলকে অচেতন দেখে আত্বীয়-স্বজনদের সহযোগিতায় মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। তারা এঘটনার যথাযথ বিচার দাবী করেন।

দোকানদার শরিফুলের পরিবারের পক্ষ থেকে জানায়, যে বা যারা এ জঘন্য অপরাধ করেছে, তাদের অবশ্যই শাস্তি পাওয়া উচিত। তাদের দোকানের সুনাম নষ্ট করা হয়েছে বলেও দাবী করেন তারা।

উজ্জলের মা বাবা জানায়,প্রায় এক বছর আগে তাদের কাছে ওই মেয়েকে বিরক্ত করার বিষয়ে অভিযোগ করা হয়েছিলো। তারা তাদের ছেলেকে শাসনও করছিলো। এরপর আর কিছু তারা জানেনা।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ