আজ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২৪ ইং

কুয়াকাটায় অবৈধ ভাবে মাছ শিকার করার মাঝিমাল্লা আটক 

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, কুয়াকাটা- কলাপাড়া, প্রতিনিধি:
পটুয়াখালী কুয়াকাটায় সরকারি নির্দেশ অমান্য করে, বঙ্গোপসাগরে অবরোধ চলাকালীন মাছ শিকারের দায়ে ৪ টি ট্রলার, ১ মন মাছ ও ১ লাখ মিটার ঘন ফাসের জালসহ ১৮ জন জেলেকে আটক করেছে কুয়াকাটা নৌ-পুলিশ। শুক্রবার আনুমানিক বিকেল। ৪টা থেকে শুরু করে সন্ধ্যা ৭.৩০মিনিট পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে জেলেদের আটক করতে সক্ষম হয়েছে।
জানা গেছে নৌকাগুলো আইন অমান্য করে সাগরে অবরোধ চলাকালীন মাছ শিকার করতে গভীর সমুদ্রে গিয়েছে, মাছ শিকার করে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে বাজারে নদীর মাছ বলে বিক্রি করতো, শেষে তাদের উপর অভিযান চালিয়ে গভীর সমুদ্র চর বিজয় নামে স্থান থেকে কুয়াকাটা নৌ-পুলিশ তাদেরকে আটক করে, আটককৃত হলো।
১.হানিফ খান (৪০)২.জিহাদ খান। (১৬)৩.আব্দুর রশিদ খলিফা (৪৫)৪. মোশাররফ হাওলাদার (৪২)৫. মোশাররফ হোসেন (৪০)৬. বলি মাঝি (৫০)৭.নুর,আলম মাঝি(৪৫)৮.রুবেল,ফকির(২৮)৯.সোহাগ(১৬)১০.হৃদয় মুন্সি (১৬)১১. সাহিন হাং (২৩)১২. সজিব (১৮)১৩. আল আমিন (২৮)
১৪. সাকিল মুন্সি (১৮)১৫. রাজু হানিফ (১৮)১৬. শহিদুল ইসলাম (২৫)১৭.মনির মুন্সি(৩০)১৮. আসাদুল ইসলাম (৩০)  আটককৃত সকলকে কুয়াকাটা নৌ-পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে।
এ বিষয়ে কুয়াকাটা নৌ পুলিশ ফাঁড়ির এএস আই, কামরুজ্জামান বলেন, আমরা গোপন সূত্রে জানতে পেরেছি যে কিছু জেলেরা গভীর সমুদ্রে মাছ শিকার করছে, আমরা খবর পেয়ে স্পিডবোট নিয়ে তাদেরকে উপর অভিযান চালিয়ে আটক করেছি এবং তাদের মাছ ধরার ট্রলার ঘন জাল সহ জেলেদের আটক করে ফাঁড়িতে আনা হয়েছে।
কলাপাড়া উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা অপু সাহা জানান, আমাদের অভিযান ২০মে থেকে শুরু হয়েছে এবং এই অভিযান ৩০শে জুলাই পর্যন্ত চলমান থাকবে. আর যারা সরকারি নির্দেশ অমান্য করে সমুদ্র মাছ শিকার করেছে, তাদেরকে জরিমানাসহ আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছে, এবং তিনি আরও জানিয়েছে যারা সমুদ্রের মাছ শিকার করে নদীর মাছ বলে বাজারে বিক্রি করে, তাদের দিকে আমাদের নজর রয়েছে, আমরা যদি প্রমাণসহ পাই তাহলে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ