আজ ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জুন, ২০২৪ ইং

কুয়াকাটায় জনসচেতনতা মূলক প্রচার-প্রচারণায় এক ঝাঁক মেধাবী তরুণ

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, কুয়াকাটা কলাপাড়া,(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:
পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক প্রচারনা ও মাস্ক বিতরণ করা হয় পথচারী, রিক্সা-ভ্যান, অটো চালক ও গাড়ী চালক, হেলপার, যাত্রী ও বাজারে আসা মানুষদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।
আজ শুক্রবার ( ২ এপ্রিল ) সকাল ১০টা থেকে একঝাঁক তরুণ ও মেধাবী সমাজসেবক এই সচেতনতা মুলক এবং মাস্ক বিতরণ কর্মসূচি ১২:৩০ মিনিট পর্যন্ত চলায়।
 কুয়াকাটা পৌরসভা সংলগ্ন থেকে শুরু করে, কুয়াকাটার পৌরসভার জমজমাট মার্কেট, বাজার এবং দোকানপাটে গিয়ে প্রচার প্রচারণা করা হয়, আর সবাইকে মাস্ক পরিয়ে দেওয়া হয়।
কুয়াকাটা পৌরসভার নির্দেশে, মাস্ক বিতরণে অংশগ্রহণ করে, কুয়াকাটা শুভ সংঘ ক্লাব, কুয়াকাটা জন্মভূমি ক্লাব, কুয়াকাটা বয়েজ ক্লাব, কুয়াকাটা তরুণ ক্লাবসহ এলাকার তরুণ সমাজসেবকগন।
করোনা ভাইরাসের জনসচেতনতা মূলক প্রচারে, কেএম বাচ্চু খলিফা বলেন, মহামারী করোনাভাইরাস ধীরে ধীরে আবার বাড়তে শুরু করেছে, আমাদের সবাইকে সচেতন থাকতে হবে,এবং মাস্ক পরিধান করতে হবে।
এদিকে, এসএম আলমাস সিকদার বলেন, আমরা কুয়াকাটার একঝাঁক তরুণ মেধাবী লোকজন মিলে মহামারী থেকে কুয়াকাটা কে রক্ষা করতে, এবং সবাইকে মাস্ক পড়া নিশ্চিত করতে আমরা এই প্রচারণা শুরু করেছি। তাদের কথার সাথে তাল মিলিয়ে মোহাম্মদ আবু হানিফ বলেন, কুয়াকাটা আমার জন্মভূমি, কুয়াকাটা রক্ষা করার দায়িত্ব আমাদের তাই আমরা সবাই মিলে মাস্ক পরী এবং সচেতন থাকি অন্যকে সচেতন করি।
কুয়াকাটা পৌরসভা থেকে বক্তব্য রাখেন, পৌর মেয়রের বড় ছেলে মোহাম্মদ মিজান হাওলাদার বলেন, কুয়াকাটা পৌরসভা থেকে এই সমাজ সেবক দলকে আমরা মাঠে নামিয়েছি, মহামারী করোনাভাইরাসের সচেতনামূলক প্রচারের জন্য পৌরসভা এই উদ্যোগ নিয়েছে, এবং বন্ধ থাকার শর্ত যে পর্যটক কুয়াকাটা আছে তাদেরকে বাড়ি ফিরে যেতে ও মাস্ক পড়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। শেষ আরো বলেন পহেলা এপ্রিল থেকে আগামী ১৫ দিনের জন্য  কুয়াকাটায় ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা করা হয়েছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ