আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২৪ ইং

লালমোহনে স্বাধীন দিবস ও সুবর্ণজয়ন্তী পালিত

মোঃ মুশফিক হাওলাদার লালমোহন ভোলা প্রতিনিধি :

ভোলার লালমোহনে যথাযথ মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০২১ পালন করা হয়েছে। ২৬ মার্চ প্রত্যুষে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভসুচনা করা হয়। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল সরকারী, আধাসরকারী, স্বায়ত্ত্বশাসিত ভবন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারী ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন। ভোর ৬:৩০ মিনিটে লালমোহন থানার মোড়ে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফলকে প্রথমে পুষ্পমাল্য অর্পন করেন ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন। এরপর উপজেলা পরিষদ, লালমোহন পুলিশ, আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনসহ, লালমোহন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পন করা হয়।
সকাল ৭ টায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি ফলকে পুস্পমাল্য অর্পন করেন এমপি শাওন। সকাল ৯টায় লালমোহন সরকারী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন এমপি শাওন, পতাকা উত্তোলন শেষে বাংলাদেশ পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস, আনসার ও ভিডিপি, বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার ছাত্রছাত্রী, স্কাউট ও গার্লস গাইডগণ কুচকাওয়াজ ও শরীরচর্চা প্রদর্শন করেন।
এরপর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে লালমোহন উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিযত হয়। লালমোহন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল নোমানের সভাপতিত্বে, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ নুরনবীর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করেছে আজ তার ৫০ বছর হল।
এটি স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী। এ উপলক্ষে লালমোহনে জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান ৭১ এর বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দিতে পেরে আমরা গর্বিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের যথাযথ সম্মান দিয়েছেন। শেখ হাসিনা সরকারের আমলে মুক্তিযোদ্ধারা যথযথ সম্মান নিয়ে দেশে বসবাস করছে।তিনি আরও বলেন বিএনপি স্বাধীনতা বিরোধী রাজাকারদের বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত করেছিল। রাজাকারদের গাড়ীতে পতাকা দিয়েছিল। বিএনপি কখনও প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান করেনি। ৭৫ এর ১৫ আগষ্টের পর বিএনপি রাজাকারদের মুক্তিযোদ্ধার সাটিফিকেট দিয়েছিল। আলোচনা সভা শেষে পুরস্কার বিতরন করা হয়। এরপর লালমোহন সরকারী শাহবাজপুর কলেজে বঙ্গবন্ধু কর্নারের উদ্ধোধন করেন এমপি শাওন। বেলা ১টায় মরকাজুল উলুম হাজী নুরুল ইসলাম চৌধুরী ক্বওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানায় কোরআন তেলোয়াত এবং জুমার নামাজের পর বিশেষ দোয়া মোনাজাত ও এতিমখানায় দুপুরের খাবার বিতরন করেন এমপি শাওন।
এ সময় অনান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লালমোহন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান আবুল হাসান রিমন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাছুমা বেগম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রাসেলুর রহমান, লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ মাকসুদুর রহমান মুরাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ফকরুল আলম হাওলাদার, পৌরসভা যুবলীগের আহবায়ক শফিকুল ইসলাম বাদল, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক মোঃ সাইফুর রহমান আবির, যুগ্ম আহবায়ক মোঃ আব্বাস বকশি, মোঃ শাহিন হাওলাদার, মোঃ সোহাগ, পৌর ছাত্র লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ জুয়েল মিয়া প্রমূখ।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ