আজ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুন, ২০২১ ইং

মায়ের সাথে ভান্ডারী গান শুনতে গিয়ে আর ফেরা হলো না স্কুল ছাত্রীর

তরিকুল ইসলাম, মাদারীপুর প্রতিনিধি 

 

মায়ের সাথে ভান্ডারি গান শুনতে বের হয়ে নৌকাডুবির ঘটনায় বাড়ি ফেরা হলোনা প্রমির।মায়ের সাথে বের হয়েছিল ভান্ডারি গান শুনতে বের হয়ে কুমার নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ হয় প্রমি অাক্তার নামক স্কুল ছাত্রীর। নিখোঁজের পরের দিন সকালে ভেসে ওঠে তার মৃতদেহ।
গত বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) রাত ১১ টার দিকে মাদারীপুর শহরের তরমুগরিয়া খেয়াঘাট এলাকায় কুমার নদীতে একটি নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। নৌকাতে থাকা ৮ জন যাত্রীর মধ্যে নিখোঁজ প্রমি অাক্তার (১১) ছাড়া সকলেই সাঁতরে পাড়ে ওঠে।
প্রমি শহরের ১নং শকুনি এলাকার সোহাগ মুনশির মেয়ে। সে ওই এলাকার দারুস সালাম কওমী মাদ্রাসার ২য় শ্রেণির ছাত্রী ছিল। পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্র জানায়, প্রমি তার মা নুপুর বেগমের সাথে ভান্ডারি গান শুনতে নতুন মাদারীপুর রওনা হয়ে কুমার নদী পাড়ি দেওয়ার সময় ৮ জন যাত্রীসহ নৌকায় ওঠে। নৌকায় অতিরিক্ত লোক হওয়ার কারনে নৌকাতে পানি ওঠে একপর্যায়ে নৌকাটি ডুবে যায়। ৭ জন সবাই সাঁতরে পাড়ে উঠলেও নিখোঁজ হয় প্রমি।পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সারারাত বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করলেও কোন সন্ধান মেলেনি প্রমির। শুক্রবার ভোর ৬টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে ৫০০ ফুট দূরে ভেসে ওঠে প্রমির মরদেহ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় পাশে স্পিকারে অনেক জোরে গান বাজানোর কারনে প্রথমে অামরা কিছু শুনতে পাইনি তারপর দ্রুত এগিয়ে গিয়ে অনেক খোজা খোজাখুজি করলেও প্রমির সন্ধান পাইনি। নিহত প্রমির মা নূপুর বলেন,নিকটাত্মীয় মো. লিখন বলেন, বাবা-মায়ের ৩ মেয়ের মধ্য ছোট মেয়ের এমন মর্মান্তিক মৃত্যু কেউ মেনে নিতে পারছে না।মাদারীপুরের ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন বলেন, নৌকাডুবির ঘটনা শুনে তৎক্ষনাৎ অামরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই। আামাদের ডুবুরি না থাকাতে বরিশাল থেকে দ্রুত ডুবুরি অাসার অাগেই প্রমির লাশ উদ্ধার করা হয়।মাদারীপুর সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শহিদুল ইসলাম বলেন, দূর্ঘটনার খবর পেয়ে আামাদের একটি টিম দ্রুত সেখানে অবস্থান করেন। পরের দিন নদীতে লাশ ভেসে ওঠার পরে লাশটি প্রমি অাক্তার বলে সনাক্ত করতে পারি।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ