আজ ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

বাংলাদেশের প্রথম বাঁহাতি স্পিনার রামচাঁদ গোয়ালা মারা গিয়েছে 

 

 

প্রিন্স ঘোষ : 

ঢাকার ক্রিকেটে তিনি কিংবদন্তিতুল্য নাম রামচাঁদ গোয়ালা।
এই প্রজন্ম তার নাম সে ভাবে জানে না। তিনি যে ছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটে শুরুর দিকে এক দুর্দান্ত বাঁ হাতি স্পিনার। আশির দশক থেকে নব্বই দশকের মাঝামাঝি পর্যন্ত খেলা এই বাঁহাতি স্পিনার রবিবার মারা  গেলেন। ময়মনসিংহে নিজ বাসভবনে ৭৯ বছর বয়সে মারা গেছেন আবাহনীতে টানা ১৫ মৌসুম খেলা সবার প্রিয় ‘গোয়ালাদা’। বিসিবি পরিচালক আহমেদ সাজ্জাদুল আলম খবরটি নিশ্চিত করেছেন।
শুরুতে পেসার থাকলেও বাংলাদেশের ক্রিকেটে বাঁহাতি স্পিনের শুরুটা হয়েছিল তাঁকে দিয়ে। বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত চলেই গেলেন পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে। থেকে গেল তাঁর ৫৩ বছর বয়সে ঢাকা লিগে খেলার কীর্তি।
খেলা ছাড়ার পর কিছুদিন কোচিংয়ের সঙ্গে ছিলেন রামচাঁদ। জাতীয় দলের ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ তাঁর ছাত্র। ময়মনসিংহে ক্রিকেট শুরু করা রামচাঁদের অভিষেক ভিক্টোরিয়ার হয়ে ১৯৬২ ঢাকা লিগে। স্পিনার হিসেবে।
ঢাকায় তিনি খেলেছেন নিয়মিত। কলকাতায় গিয়েও বাংলাদেশের হয়ে অনেক আনঅফিশিয়াল ম্যাচ খেলেছেন। ইডেনে ১৯৮৩ সালে পশ্চিমবঙ্গের বিপক্ষে খেলেছেন ম্যাচ। ১৯৪১ সালে জন্মেছিলেন রামচাঁদ গোয়ালা।জাতীয় দলে হাতে গোনা কয়েকবার খেলেছেন।
রামচাঁদ গোয়ালার ক্রিকেট জীবন খুব কাছ থেকেই দেখেছেন ক্রিকেট সংগঠক ও বিসিবির অন্যতম পরিচালক সাজ্জাদুল আলম। বললেন, ‘গোয়ালা দা ছিলেন দারুণ একজন টিমম্যান। অনুপ্রেরণাদায়ী এক চরিত্র। দীর্ঘ তাঁর ক্যারিয়ার। ৫০ বছরেরও বেশি বয়সে তিনি খেলে গেছেন। নিজের মান কখনোই নিচে নামতে দেননি।’
দেশের ক্রিকেটের সংগ্রামের দিনগুলিতে রামচাঁদ গোয়ালা ছিলেন বড় এক নাম। কিন্তু এই রমরমা সময়ে তিনি হয়ে ছিলেন অবহেলিত। সাকিব–মাহমুদউল্লাহদের পূর্বসুরীর বোধহয় এটা প্রাপ্য ছিল না।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ