আজ ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুলাই, ২০২১ ইং

করোনাকালীন সময়ে মৌলভীবাজারে প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখছে ব্র্যাক

 

কাইয়ুম সুলতান, মৌলভীবাজার:

 

ব্র্যাক একটি আর্ন্তজাতিক বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা। বিশ্বের মধ্যে র্সববৃহৎ এনজিও হিসেবে পরপর ৫ বার বিশ্বে প্রথমস্থান অধিকার করে একটি উন্নয়ন ও সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্টান হিসেবে বিভিন্ন র্কাযক্রম পরিচালনা করছে।
করোনা ভাইরাস শুরুর পর থেকে ব্র্যাক সারাদেশ জুড়ে সরকারের পাশাপাশি জনগণকে সচেতনকরণ ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ করোনা সর্ম্পকিত বিভিন্ন কার্যক্রম পালন করে আসছে। প্রতিষ্ঠানের নর্থ ইস্ট ডিভিশনের ডিভিশলান ম্যানাজার(দাবি) গোলাম রাব্বানী মহোদয়ের নির্দেশনায় ও জেলার আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক (দাবি), শংকর কুমার কুন্ডুর সুযোগ্য নেতৃত্বে মৌলভীবাজার জেলায় সাধারণ জনগণ এবং গ্রাহকদের মাঝে করোনা সর্ম্পকে সচেতন করার জন্য লিফলেট বিতরণ, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে উদ্ধুদ্ধকরণ, মৌলভীবাজার জেলায় প্রত্যকেটি উপজলো, ইউনিয়ন, গ্রাম, পাড়া-মহল্লা এবং হাট-বাজারে মাইকিংসহ বিভিন্ন স্থানে সাবান পানি দিয়ে হাত ধোঁয়ার ব্যবস্থা করেন। ব্র্যাক এর ৯৩৬ জন গ্রাহকের মাঝে ২টি করে সাবান এবং ২টি করে হারপিক পাউডার প্রদান করা হয়।
সারা দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের কারণে হিমশিম খাচ্ছে ক্ষুদ্র আয়ের মানুষ। দেশের অনেক দরিদ্র মানুষ কোননা কোন ঋণ দাতা সংস্থার সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে জড়িত আছেন। মৌলভীবাজার জেলার অন্যান্য ক্ষুদ্র ঋণ সংস্থা গুলো যেখানে ক্ষুদ্রঋণের কিস্তি আদায়ের জন্য গ্রাহকদের চাপ প্রয়োগ করছে, সেখানে বেশ কিছু ব্যতিক্রমী কাজ করে আলোচনায় এসেছে ব্র্যাক এবং ব্র্যাক মাইক্রোফাইন্যান্স।
ব্র্যাক মাইক্রো ফাইন্যান্স প্রান্তিক পর্যায়ে জনগোষ্ঠীর কথা বিবেচনা করে গত মার্চের ২৪ তারিখ থেকে আগামী ৩০ জুন ২০২০ইং পর্যন্ত মাঠ পর্যায়ে সকল ধরণের কিস্তি এবং সঞ্চয় আদায় স্থগিত করেছেন। এছাড়াও গত ১০মে থেকে সাধারণ জনগোষ্ঠীর আর্থিক প্রয়োজনীয়তা বিবেচনা করে কৃষি খাত, মুদি দোকান এবং ফার্মেসী ব্যবসায়ীদের মাঝে সীমিত আকারে ঋণ বিতরণ অব্যাহত রেখেছে। পাশাপাশি ৫৬০০ জন গ্রাহকদের মাঝে প্রায় ১,৩০,০০,০০০/- (এক কোটি ত্রিশ লক্ষ) টাকা জরুরী ভিত্তিতে বিকাশের মাধ্যমে সঞ্চয় ফেরত দেওয়া হয়েছে। সরকারের সিদ্ধান্ত মেনে ব্র্যাক এর কোন কর্মী মাঠে গিয়ে কিস্তি আদায় না করে অদ্যাবধি মহামারী করোনা ভাইরাস রোধে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। সরকারের সাথে কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সহায়তা করার জন্য ব্র্যাককে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় থেকে একটি সনদপত্র প্রদান করা হয়েছে।
এছাড়াও ব্র্যাক ইউপিজি র্কমসূচী থেকে ১৯৫৪ টি পরিবারকে ব্র্যাক শিক্ষা কর্মসূচী থেকে ১০০৮টি পরিবার কে এইচআরএলএস কর্মসূচী থেকে ১৬০টি পরিবারকে ওসিইপি কর্মসূচী থেকে ১৩৩টি পরিবারকে র্সবমোট ৩২৫৫টি পরিবারকে এককালীন ১৫০০/- (একহাজার পাঁচশত) করে র্সবমোট ৪৮,৮২,৫০০/- (আটচল্লিশ লক্ষ বিরাশি হাজার পাঁচশত) টাকা প্রদান করেন। মৌলভীবাজার জেলার শমসেরনগর চা বাগানে ব্র্যাক এর র্অথায়নে পেপসিকোর সহায়তায় ২০০টি পরিবারকে এক মাসের খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন। উপরোক্ত কাজ গুলো তে সার্বিক সহযোগিতা করেন ব্র্যাক জেলার সমন্বয়কারী অরুন কুমার দাস।
মৌলভীবাজার জেলা শাখার ব্যবস্থাপক (দাবি) মোঃ আব্দুল মান্নান বলেন, এই সংকটময় মুর্হুতে অসহায় মানুষদের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করছি।
মৌলভীবাজারের এলাকা ব্যবস্থাপক (দাবি) মোঃ কামরুল হাছান বলেন, প্রান্তিক এবং দরিদ্র জনগণের কথা বিবেচনা করে আমরা মাঠপর্যায়ে এখনও কোন কিস্তি আদায় না করে তাদের পাশে থেকে সমস্যা উত্তরণের চেষ্টা করছি। এমন অবস্থায় সরকারের একারপক্ষে এই ভাইরাস মোকাবেলা করা সম্ভব নয়, তাই সরকারের পাশাপাশি সবাইকে যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসতে হবে।

 

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ