আজ ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৩শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ইন্দুরকানি উপজেলার তিনটি গ্রামের একশত পরিবার পাচ্ছেনা সূপেয় পানি

 

মতিউর রহমানঃ পিরোজপুর জেলা প্রতিনিধি:

 

সূপেয় পানি বলতে সাধারণত, পানিতে দ্রবীভূত অবস্থায় লবণাক্ততার মাত্রা ৫০০ পিপিএম বা এক মিলিয়নের পাঁচশত ভাগের চেয়ে কম থাকে তাঁকে সূপেয় পানি বলা হয়।

পিরোজপুরের ইন্দুরকানি উপজেলার পাড়েরহাট ইউনিয়নের ৫ নং উমেদপুর, পশ্চিম উমেদপুর ও মধ্য উমেদপুরের তিনটি গ্রামের প্রায় ১শতাধিক পরিবারের মানুষ পাচ্ছেন’না সূপেয় খাবার পানি।

ভোগান্তিতে পরা এই তিনটি গ্রামের মানুষদের বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করতে তাদের পাড়ি দিতে হয় প্রায় ৩ কিলোমিটার পথ। এলাকার খেটে খাওয়া অসহায় মানুষদের আর্তনাদ বিত্তশালী মানুষদের প্রতি, এই তিনটি গ্রামের মানুষদের সূপেয় পানি সরবরাহের মাধ্যমে ব্যাবস্থার আবেদন।

পানির অপর নাম জীবন, পানি ছাড়া জীবকুল কে কল্পনা করা যায়’না। মানুষের সুস্থ থাকার জন্য বিশুদ্ধ পানি’র কোন বিকল্প নেই। শরীরের
জন্য পরিমিত পানি পানের গুরুত্ব অপরিশীম। শরীরকে সুস্থ ও স্বাভাবিক রাখতে একজন মানুষকে প্রতিদিন ৮-১৮ গ্লাস পানি পান করা উচিৎ। পরিমিত পরিমাণে পানি পান না করলে কিডনি, গ্যাস্ট্রিকসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে পারে। আর সেই পানি যদি বিশুদ্ধ’ না হয় তাহলে
জীবনের ঝুঁকি থেকেই যায়। বিশুদ্ধ ও সূপেয় পানি পানে কোন বিকল্প নেই।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ