আজ ২৭শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই জুন, ২০২১ ইং

র‍্যাবের অভিযানে প্রতারক চক্রের ৭ সদস্য আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক

গাজীপুরের একটি মার্কেটে ২য় তলায় অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের ৭ সদস্যকে আটক করেছে র‍্যাব-৪

বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারী) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাব-৪ সাভার নবীনগর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা।
বুধবার (৮ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আশুলিয়ার জিরানী বাজার সংলগ্ন গাজীপুরের কাশিমপুর থানার গোলাম নবী সুপার মার্কেটে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এসময় প্রতারণার শিকার ৪২ জনকে উদ্ধার করে র‍্যাব।

আটকরা হলেন, নিলফামারী জেলার সৈয়দপুর থানার কিসামত ডাঙ্গী গ্রামের হামিদুল ইসলামের ছেলে মোঃ হাসান (২৭), পিরোজপুর জেলোর সরুপকাঠী থানার কামার কাঠী গ্রামের অরুন দাসের ছেলে নীল রতন দাস (২৩), গোপালগঞ্জ জেলার কোটালিপাড়া থানার সিতাইকুন্ড গ্রামের মোঃ মাসুম ফকিরের ছেলে মোঃ মেহেদী হাসান (২৫), রংপুরের পিরগাছা থানার পূর্ব খামার গ্রামের মোঃ জাহিদুল ইসলামের ছেলে মোঃ ফাহিম আহম্মেদ (২০), নিলফামারী সদরের চরচড়া বাড়ী গ্রামের নইফুল ইসলামের ছেলে মোঃ আঃ রাজ্জাক (২৪), গোপালগঞ্জ জেলার কাসিয়ানী থানার রাতইল গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে মোঃ ইয়াছিন (২৮) এবং রংপুর জেলার গঙ্গাচালা থানার আরাজিনিয়ামত গ্রামের মৃত খতিব উদ্দিনের ছেলে মোঃ নুর ইসলাম স্বপন (৪০)। তারা সবাই গাজীপুরের জিরানী বাজার এলাকায় ভাড়া থেকে চাকরি দেওয়ার নাম করে সহজ সরল মানুষদের সাথে প্রতারণা করে আসছিলো বলে জানা গেছে।

র‍্যাব- ৪ এর সাভার নবীনগর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা বলেন, কিছু সুযোগ সন্ধানী অসাধু প্রতারক চক্র বর্তমান সময়ে প্রতারণার বিভিন্ন ফাঁদ, যেমন চাকুরী দেওয়ার নাম করে বিভিন্ন শ্রেণীর সাধারণ জনগণের সরলতার সুযোগ নিয়ে প্রতারণা করে আসছে। প্রতারণার নব্য এই কৌশল গুলি কাজে লাগিয়ে সমাজের সহজ সরল নিরীহ কিছু লোককে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে সুযোগ সন্ধানী অসাধু প্রতারক চক্র দিন দিন তাদের প্রতারণার মাত্রা বাড়িয়ে চলেছে। এতে ঐ সমস্ত সহজ সরল নিরীহ লোকজন আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে এবং তৈরী হচ্ছে সামাজিক অস্থিরতা।এসব সামাজিক অস্থিরতা ঠেকাতে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৭ প্রতারককে আটক সহ ৪২ ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করা হয়। এসময় ৩ টি সিপিইউ, ৫টি কম্পিউটার মনিটর, ২ টি মাউচ, ৩ টি কি-বোর্ড, ৮ টি মোবাইল সেট, ১০ টি বিভিন্ন রেজিষ্টার, ১ সীল, ২০ টি আইডি কার্ড, ১৭ টি ভর্তি ফরম ও ২ টি মানি রিসিভ বই জব্দ করা হয়। আটকরা ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে প্রায় ১৭ লক্ষ টাকার অধিক আত্মসাৎ করেছে বলেও জানান তিনি।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করে থানায় হস্তান্তর করা হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ