আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

লক্ষ্মীপুরে একটি সাঁকো আমাদের আর্তনাদ 

 

মোঃ হৃদয় হোসেন লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:

লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলাধীন ০২ নং উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের ০৮ নং ওয়ার্ডের কুচিয়ামোড়া এলাকায় এই সাঁকোটি অবস্থিত। ধারণা করা হয়ে থাকে যে, লক্ষ্মীপুর জেলার সবচেয়ে বড় সাঁকো এখন এটিই।

এই সাঁকো দিয়ে দৈনিক হাজার হাজার বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার মানুষজন আসা যাওয়া করে।
সাঁকো দিয়ে পার হয়ে চর পাগলা কাজী বাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের প্রতিনিয়ত স্কুলে আসতে হয়। অপেক্ষাকৃত কম বয়সী ছাত্রছাত্রীরা এই সাঁকো পার হয়ে স্কুলে আসতে পারে না। অনেক দুর ঘুরে তাদের স্কুলে আসতে হয়।

তাছাড়া অত্র অঞ্চলের অধিকাংশ মানুষের পেশা কৃষিকাজ করা ও নদীতে মাছ ধরা। চরে যাওয়ার জন্য প্রতিদিন তাদের এই সাঁকো ব্যাবহার করে যেতে হয়। অন্ধকার রাতে এই সাঁকো পার হওয়া খুবই কষ্টকর।
প্রতি বছরই বর্ষায় পানির স্রোত বেড়ে গেলে সাঁকোটি ভেংগে যায় তখন অত্র এলাকার মানুষের দুঃখের সীমা থাকে না।

স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকে এখন পর্যন্ত সাঁকো থেকে পড়ে গিয়ে অনেক লোক নিহত হয়েছেন। এখনও অনেকেই গুরুতর আহত অবস্থায় জীবনযাপন করছেন।

বিভিন্ন সময়ে অনেক জনপ্রতিনিধি সরেজমিনে এসে আশ্বাস দিলেও কখনোই একটা ব্রীজ নির্মান করে কুচিয়ামোড়া বাসির কষ্ট কেউ দুর করতে পারেনি।
লক্ষ্মীপুর-২ আসনের মাননীয় এমপি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, রায়পুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ০২ নং উত্তর চরবংশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ০৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বারসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমে অত্র জায়গায় এই ভয়ংকর সাঁকোটি ভেংগে ব্রীজ করে দেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ