আজ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

ধামরাইয়ে শ্রীশ্রী জগন্নাথদেব ও শ্রী শ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী বাবার আশ্রম ও মন্দিরে স্নানযাত্রা মহোৎসব উদযাপিত

 

রনজিত কুমার পাল বাবু
নিজস্ব প্রতিবেদক:

আজ শুক্রবার (৫ই জুন) পরমেশ্বর ভগবান জগন্নাথদেবের স্নানযাত্রা উৎসব।
মুলত স্নানযাত্রা হল হিন্দু পঞ্জিকাঅনুসারে জ্যৈষ্ঠ মাসের পূর্ণিমা তিথিতে আয়োজিত একটি উৎসব। হিন্দু দেবতা জগন্নাথের ভক্তদের কাছে এটি একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ উৎসব। এই দিনটিকে জগন্নাথের জন্মতিথি মনে করা হয়।
পুরীতে স্নানযাত্রা উপলক্ষ্যে জগন্নাথ, বলভদ্র, সুভদ্রা, সুদর্শনচক্র ও মদনমোহন বিগ্রহকে জগন্নাথ মন্দির থেকে স্নানবেদীতে বের করে আনা হয়। সেখানে তাদের প্রথাগতভাবে স্নান করানো হয় এবং ভক্তদের দর্শনের জন্য সুন্দর বেশভূষায় সজ্জিত করা হয়। এই প্রথা বাংলাদেশে ও পালিত হয় উৎসবমুখর পরিবেশে।

আজ শুক্রবার (৫ই জুন ২০২০ খ্রীস্টাব্দ) –
ঢাকার ধামরাই উপজেলার পৌরশহরের কায়েতপাড়াস্হ শ্রী শ্রী জগন্নাথদেব ও শ্রী শ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী বাবার আশ্রম ও মন্দিরে
শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের স্নান যাত্রা মহা অভিষেক মহোৎসব এর আয়োজন করা হয়।
সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে উৎসবের সকল কার্যক্রম সম্পূর্ণ করা হয়।

সীমিত আকারে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ভগবান জগন্নাথ দেবের স্নানযাত্রা উৎসব উদযাপন করা প্রসঙ্গে শ্রীশ্রী লোকনাথ বাবার আশ্রম ও জগন্নাথ মন্দির কমিটির সভাপতি মুকুল দাস ও সাধারণ সম্পাদক পরিতোষ পাল বলেন- দেশের ক্রান্তিলগ্নে মহামারীর কারণে দেশের সকল মানুষের মঙ্গল ও কল্যাণ এর জন্য সরকারি নির্দেশ মেনে সীমিত আকারে এবারের তিরোধান উৎসব পালন করছি। সেই সাথে সকল ঋক্তবৃন্দকে বাবার স্মরণীয় মুহূর্তগুলো মনে ধারন করে প্রার্থনা করবে মনেপ্রাণে ।
এ’সময় আরো উপস্থিত ছিলেন উক্ত মন্দির পরিচালনা কমিটির কর্মকর্তা প্রদীপ পাল সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও ভক্তবৃন্দ।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ