আজ ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ ইং

ধামরাইয়ে অটোচালক হত্যা, গ্রেপ্তার ৪ ছিনতাইকারী

সাভার প্রতিনিধি:

ঢাকার ধামরাইয়ে কালাম বিশ্বাস (২৬) নামে এক অটোরিকশা চালক হত্যার ঘটনায় চার ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৪।

বুধবার (১৩ জুন) দুপুরের দিকে সাভারের নবীনগর এলাকায় র‌্যাব-৪ এর সিপিসি-২ নবীনগর ক্যাম্পে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেপ্তাররা হলেন- ঢাকার শান্ত মনি দাস ওরফে বিচ্ছু শান্ত (১৯), বিজয় মনি দাস (২০), শ্রীকান্ত কর্মকার (২০) ও বিশ্বনাথ মনি দাস বিশু (২০)।

নিহত কালাম বিশ্বাস টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার ধুপুরিয়া এলাকার বাসিন্দা। স্ত্রীসহ ঢাকার সাভারের উত্তরপাড়া খালেক মার্কেটের পাশে একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন তিনি।

র‍্যাব জানায়, গত ৯ জুন ধামরাইয়ের কুল্লা ইউনিয়নের পশ্চিম বাড়িগাঁও এলাকায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে মরদেহটি অটোচালক কালাম বিশ্বাসের বলে শনাক্ত করা হয়। জানা যায়, তিনি গত ১০-১২ বছর ধরে পরিবারসহ সাভারে বসবাস করছিলেন। ওই ঘটনায় নিহতের স্ত্রী ধামরাই থানায় অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্তে নেমে ধামরাই ও মানিকগঞ্জ থেকে হত্যাকান্ডের মূলহোতা ও অটোরিকশা ছিনতাই চক্রের মূলহোতাসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে র‍্যাব জানায়, গত ৮ জুন দুপুরের দিকে গ্রেপ্তার শান্ত বাইক কেনার জন্য বাসা থেকে বের হয়ে বিশু ও বিজয়ের সঙ্গে দেখা করে। অল্প টাকায় বাইক কেনা যাবে না বিধায় তারা অটোরিকশা ছিনতাই করে বিক্রি করবে বলে পরিকল্পনা করে। এক পর্যায়ে তারা পূর্ব পরিচিত অটোরিকশা চালক কালামকে লক্ষ্যবস্তু করে। তাকে মাদক সেবন করিয়ে সুইচ গিয়ারের ভয় দেখিয়ে ছিনতাই করবে বলে পরিকল্পনা করে। এ অনুযায়ী তারা কালামের অটোরিকশা রিজার্ভ ভাড়া করে পার্কে ঘুরতে যাবে বলে জানায়। সেদিন রাতের দিকে বাড়িগাঁও পশ্চিমপাড়া নির্জন জায়গায় এলে পূর্বপরিকল্পনানুযায়ী তারা ভুক্তভোগীকে অচেতন করে ও শান্তর কাছে থাকা সুইচ গিয়ার দিয়ে গলায় ও বুকে ছুরিকাঘাত করে তার মৃত্যু নিশ্চিত করে।

এছাড়া মরদেহ আড়াল করতে সেটি খড় দিয়ে বিজয়। আর বিশু অটোরিকশা নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। তাদের অপর সহযোগী শ্রীকান্তের সহায়তায় সেটি গোপন করে। আলামত উদ্ধারে র‍্যাবের অভিযান চলছে বলে জানানো হয়।

র‍্যাব-৪ সিপিসি-২ এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রাকিব মাহমুদ খান বলেন, গ্রেপ্তাররা সাভার বাজার ও ধামরাই এলাকার চুরি, ছিনতাই এবং মাদক সেবন করে থাকে।

গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ