আজ ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ ইং

আশুলিয়ায় ডাকাতি, অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে টাকাসহ ১৭ ভরি স্বর্ণালংকার লুট

সাভার প্রতিনিধি:

সাভারের আশুলিয়ায় বারান্দার গ্রিল কেটে একটি ডুপ্লেক্স বাড়িতে প্রবেশের পর লোক জনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করেছে একটি ডাকাতদল। এসময় ডাকাত সদস্যের মারধরে প্রায় তিন জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার (১ জুন) সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে ডাকাতির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাদরুজ্জামান। এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাত ২ টা থেকে সাড়ে তিনটা পর্যন্ত আশুলিয়ার ইয়ারপুর ইউনিয়নের ইয়ারপুর স্কুল সংলগ্ন আব্দুর রহমান দেওয়ানের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- ইয়ারপুর ইউনিয়নের ইয়ারপুর গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে রহমান দেওয়ান, তার ছেলে ফয়সাল ও ছেলের বউ। তারা সবাই ওই বাড়িতে বসবাস করতেন।

ভুক্তভোগী আব্দুর রহমান দেওয়ান জানান, গতকাল রাতের খাবার খেয়ে ১০ টার দিকে সবাই ঘুমিয়ে পরি। রাত ২ টার দিকে ৮/১০ সদস্যের একটি ডাকাতদল আমার বাড়িতে প্রবেশ করে। এরপর বাড়ির সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে। পরে ১৭ ভরি স্বর্ণালংকার ও তিন লাখ টাকা লুট করে। এসময় আমরা বাড়ির লোকজন বাধা দিলে আমার ছেলে, ছেলের বউ ও আমাকে ব্যাপক মারধর করে। পরে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুট করে পালিয়ে যায়। ডাকাতরা চলে যাওয়ার পরে আমাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ভুক্তভোগীর ফুপাতো ভাই আনোয়ার বলেন, রাতে ডাকাতি হয়েছে। আমার ভাই, ভাতিজা ও ভাতিজা বউকে মারধর করেছে ডাকাতরা। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সকালে হাসপাতাল থেকে তাদের বাড়ি আনা হয়েছে। আমরা সিসি ক্যামেরায় দেখেছি ডাকাতি শেষে ডাকাতরা দলবদ্ধভাবে বের হয়ে যাচ্ছে। আমার ভিতিজার প্রায় দুই মাস আগে বিয়ে হয়। বিয়ের স্বর্ণালংকার প্রায় ১৬/১৭ ভরি ছিল। সেগুলোসহ প্রায় ৩ লাখ টাকা নিয়ে গেছে ডাকাতরা।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাদরুজ্জামান বলেন, ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম, সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখা হচ্ছে। ফুটেজ দেখে বিস্তারিত বলা যাবে। তবে লুট হওয়া টাকা ও স্বর্ণালংকারের ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা এখনও কিছু জানায় নি। ঘটনাস্থলে আবার যাবো। বিস্তারিত পরে জানাতে পারবো।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ