আজ ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৩ই আগস্ট, ২০২২ ইং

ধামরাইয়ে রোজা রেখেই কৃষকের ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দিল উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা

রনজিত কুমার পাল (বাবু)
নিজস্ব প্রতিবেদক :

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার আহবানে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে ও ঢাকা জেলা উত্তর ছাত্রলীগের সার্বিক তত্ত্বাবধানে কৃষকের পাশে ধামরাই উপজেলা পৌর ছাত্রলীগ।
ঢাকার ধামরাইয়ে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাব এর কারণে শ্রমিক সংকটে পড়া কৃষকদের ধান কেটে কৃষকের বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) ধামরাই উপজেলা শাখার ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক আদনান হোসেন এর নেতৃত্বে ২০ জনের একটি দল ধামরাই উপজেলার ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের চন্দ্রপাড়া গ্রামের কৃষক এর ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন।

করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব এর কারণে শ্রমিক সংকটে বিপাকে পড়া অসহায় কৃষকের পাঁকা ধান কাটার সহযোগিতা করার জন্য দিনব্যাপী রোজা রেখেই ধামরাই উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা ধামরাইয়ের ভাড়ারিয়ার চন্দ্রপাড়া গ্রামের কৃষকের ক্ষেতে পাঁকা ধান কাটা কর্মসূচি পালন করেছে।
আদনান হোসেন এর নেতৃত্বে ধান কাটা কর্মসূচিতে আরো অংশগ্রহণ করেন ধামরাই উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক মাহবুবুর রহমান, সোহেল রানা, পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক রাজন আহমেদ সহ উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের কর্মীবৃন্দ।

ধামরাই উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক আদনান হোসেন বলেন, ঢাকা জেলা উত্তর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম এর নির্দেশে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর কারণে শ্রমিক সংকটে পড়া কৃষকেরা বিপাকে পড়ায় আমরা ধামরাই উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা রোজা রেখেই ধান কেটে ঘরে পৌঁছে দেয়ার কাজ করেছি।

তিনি আরও বলেন, কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। কৃষক ভালো থাকলে দেশ ভালো থাকবে। ধামরাই উপজেলার যে সব এলাকায় পাকা ধান রয়েছে এবং যারা শ্রমিক পাচ্ছেন না আমরা চেষ্টা করছি সেই সব কৃষকদের পাশে থাকার।

ধামরাই উপজেলা ছাত্রলীগের স্বেচ্ছায় এই ধান কাটায় কৃষকরা তাদের প্রতি৷ কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ