আজ ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১লা অক্টোবর, ২০২২ ইং

সাভারে আরও ৭৫ পরিবার পেল মাথা গোঁজার ঠাঁই

সাভার  প্রতিনিধি:

সারা দেশের ন্যায় সাভারেও ৭৫ টি ভূমিহীন পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে গৃহসহ জমির দলিল হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) সকালে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী সরাসরি এই গৃহসহ জমির দলিল হস্তান্তরের উদ্বোধন করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সাভার উপজেলায় মোট ৭৫ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে কবুলিয়ত দলিল ও নামজারি খতিয়ানসহ নতুন ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে।

নতুন নির্মিত ঘর গুলো তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের কান্দিবৈলারপুর মৌজায় ৮৬ শতক জমিতে ৪৩ টি,

বিরুলিয়া ইউনিয়নে সাদুয়াপুর গ্রামে ১টি ও সাভার ইউনিয়নের খঞ্জনকাঠি মোজায় ৬২ শতক জমিতে মোট ৩১ টি পরিবারসহ মোট মোট ৭৫ টি পরিবারকে এই উপহার তুলে দেওয়া হয়।

ঘর পেয়ে আবেগে আপ্লূত ফাতেমা আলী (বিরঙ্গনা)  বলেন, এতোদিন আমার মাথা গোঁজার ঠাঁই ছিল না। আজ প্রধানমন্ত্রী আমাকে দিয়েছেন।

আমি কল্পনা করতে পারি নাই আমার থাকার ঘর হবে। আমি নিজেই ঘরের মালিক হবো এমন স্বপ্ন প্রধানমন্ত্রী পূরণ করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি চিরঋণী।

ঘর পেয়ে আবেগে কেঁদে ফেলেন আশুরা খাতুন। তিনি বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে অনেক কষ্টে অন্যের জায়গায় ঝুপড়ি ঘরে থাকতাম।

মনে হয়েছিল জীবনের শেষ সময়টা মনে হয় এরকম কষ্ট করেই পাড়ি দিতে হবে। কিন্তু আল্লাহ্ মুখ তুলে তাকিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার আমার হাতে এসেছে। আমি যে কতটা ভাগ্যবতী তা এখন বুঝতে পারছি। আল্লাহ্ প্রধানমন্ত্রীর নেক হায়াত বাড়িয়ে দিন।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম বলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর তৎপরতায় ১৫০ শতক খাস জমি উদ্ধার করা হয়।

যার বর্তমান গড় বাজার মূল্য আনুমানিক প্রায় ১৬ কোটি ৫ লক্ষ ঢাকা। এসব ভূমিতে তৃতীয় পর্যায়ে ভূমিহীনদের জন্য ঘর নির্মাণ করা হয়। ঘর নির্মানে ঢাকা বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসনের সরাসরি তত্বাবধানে সাভার উপজেলা প্রশাসন,

উপজেলা প্রকৌশলীর দপ্তর ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার দপ্তরের সার্বিক সমন্বয়ে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য ঘরের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তৃতীয় পর্যায়ে (২য় ধাপে) এবারে সারাদেশে মোট প্রায় ২,৬২২ ভূমিহীন পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর এই নতুন ঘর তুলে দেয়া হয়।

আশ্রায়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সরাসরি তত্ত্বাবধানে নির্মিত ৩য় পর্যায়ের ঘরে ১ম পর্যায়ে নির্মিত ঘরের তুলনায় বেশ কিছু টেকসই ও গুনগত পরিবর্তন আনা হয়েছে।

উপকারভোগীদের উপজেলা আশ্রয়ণ প্রকল্প বাস্তবায়ন সংক্রান্ত টাস্কফোর্স কমিটির সভার অনুমোদনক্রমে ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মতামতের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ সর্তকতার সাথে যাচাই-বাছাই কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে।

তালিকা ভিত্তিক আবেদনকারীদের প্রত্যেকের আলাদা সাক্ষাৎকার গ্রহণ ও সরেজমিন পরিদর্শনের মাধ্যমে যথাযথ উপকারভোগী বাছাই ও তাদের জন্য বন্দোবস্তকৃত ঘরে বসবাসের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

ভূমি ও ঘরের দলিল বিতরণ অনুষ্ঠানে  উপস্থিত ছিলেন সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব, সাভার তেতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর, সাভার ভূমি কর্মকর্তাসহ আরও অনেকে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ