আজ ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

লক্ষ্মীপুরে অটোরিকশা চলাচলে করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা

 

মোঃ হৃদয় হোসেন লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরে স্থানীয় প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সড়কে চলাচল করছে অসংখ্য ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা। অবৈধ এই গণপরিবহন চলাচলের কারণে স্থানীয়দের হাটবাজারে আসা-যাওয়াতে সুবিধা হওয়ার পাশাপাশি অন্য জেলা থেকে আগতদের যাতায়াত সহজ হয়ে গেছে। প্রতিটি অটোরিকশায় ৭-৯ জন একসঙ্গে যাতায়াত করায় করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

শনিবার (১১ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত নোয়াখালী-লক্ষ্মীপুর আঞ্চলিক সড়ক এবং লক্ষ্মীপুর পৌরসভার গোডাউন সড়কে যাত্রীবাহী ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা গুলো চলাচল করতে দেখা যায়।

আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নোয়াখালী-লক্ষ্মীপুর আঞ্চলিক সড়ক সংলগ্ন মান্দারী বাজারে একটি অটোরিকশায় ৭ জন যাত্রী দেখা যায়। যাত্রীদের মধ্যে ৪ জন ফেনী থেকে আগত, তারা ভোলা যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন। বাকি ৩ জন স্থানীয় ছিলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পুলিশের অবস্থান এড়িয়ে চালকরা এই অটোরিকশা গুলোর চলাচল অব্যাহত রেখেছেন। কিছু চালক নিজেই মালিক। তারা মানবিক দুর্বলতাকে কাজে লাগিয়ে প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করছেন। তবে অটোরিকশা চালকদের অধিকাংশই হতদরিদ্র। অভাবের তাড়নায় বাধ্য হয়ে রাস্তায় নেমেছেন বলে জানিয়েছেন তারা। শুধু অটোরিকশা নয়, সড়কে অবাধে চলছে রিকশা, সিএনজি এবং মালামাল ও শ্রমিক বহনকারী মিনি পিকআপ ভ্যান গুলোও। অন্যদিকে স্থানীয়রা প্রয়োজনে-অপ্রয়োজনে হাটবাজারে এসে জনসমাগম সৃষ্টি করছেন।

গত শুক্রবার (১০ এপ্রিল) একটি বিশেষ ঘোষণাপত্রের মাধ্যমে যান চলাচলসহ বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা জারি করেন জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল। জেলাবাসীর অবগতির জন্য মাইকিং ও ফেসবুকে পোস্টসহ বিভিন্নভাবে ঘোষণাপত্রটি প্রচার করা হয় বলে জানা গেছে।

লক্ষ্মীপুরের ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক মামুন আল আমিন শীর্ষ সংবাদকে বলেন, ‘করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে আমরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। জনগণকে সচেতন ও সতর্ক করার পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাস্তায় বের হওয়া ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাসহ অন্যান্য যানবাহন গুলোর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ